advertisement
আপনি দেখছেন

প্রায় দশবছর আগে ইরাক এবং আফগানিস্তানে মার্কিন অভিযান চলাকালীন সময়ের সেনা নির্যাতনের প্রায় ২০০ ছবি প্রকাশ করেছে পেন্টাগন। বেশিরভাগ ছবিতে ইরাকের ‘কুখ্যাত’ আবু গারিব এবং কিউবার গুয়াতনামো বে’র বন্দীশালার বন্দীদের নির্যাতিত হওয়ার লোমহর্ষক ছবি রয়েছে। ছবিগুলোতে বন্দীদের শরীরে কঠিন প্রহারের ক্ষত দেখা যাচ্ছে।

us torture

ছবিগুলো মূলত আমেরিকান নিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়ন নামের একটি প্রতিষ্ঠানের আবেদনের ভিত্তিতে জনসম্মুখে আনা হয়। প্রতিষ্ঠানটি তথ্য অধিকার আইনে বন্দীদের দুর্দশার চিত্র তুলে ধরতেই এই আবেদন করে।

এর আগে ২০০৪ সালের দিকে ইরাকের আবু গারিব কারাগারে বন্দীদের নির্যাতনের ছবি প্রকাশ পায়। ছবির মাধ্যমে বন্দীদের ওপর মার্কিন সেনাদের শারীরিক নির্যাতন এবং যৌন নির্যাতনের বিভিন্ন দৃশ্য প্রকাশ পায়। পরবর্তি বিশ্বব্যাপী মার্কিন সেনাদের এমন কাজের জন্য তিরস্কার করা হয়।

সেই সময় যতগুলো ছবি প্রকাশ হয়েছিল এর মধ্যে ১৪ টি নির্যাতনে ঘটনা নিশ্চিত হয়েছিল মার্কিন প্রশাসন। পরবর্তি ছবি দেখে ৬৫ সেনা সদস্যের বিভিন্ন মেয়াদে সাজা এবং অনেকের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড কার্যকর হয়। আর ৪২ টি অভিযোগের সত্যতা পাওয়া যায়নি।

তবে এসিএলইউ নামের একটি প্রতিষ্ঠার বন্দীশিবিরে সেনা নির্যাতনের প্রায় ২ হাজার ছবি প্রকাশ করতে চায়। ছবি প্রকাশ করার জন্য প্রতিষ্ঠানটি ১০ বছর ধরে লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে। তবে ছবি প্রকাশ হলে মার্কিন বিরোধী মনোভাব উস্কে যেতে পারে শঙ্কা করে মার্কিন প্রশাসন ছবি প্রকাশ করতে দিচ্ছে না।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

রেকর্ড সংখ্যক মানুষ মার্কিন নাগরিকত্ব ত্যাগ করেছে

ভূমিকম্প: তাইওয়ানে ১৬তলা ভবন বিধ্বস্ত, নিহত ১১

অ্যাসাঞ্জাকে মুক্তি ও ক্ষতিপূরণ দিতে বলছে জাতিসংঘ

sheikh mujib 2020