advertisement
আপনি দেখছেন

পেস্তা বাদাম চাষ ও উৎপাদন নিয়ে ইরান-আমেরিকা যুদ্ধ তুঙ্গে উঠেছে। সম্প্রতি ইরানের ওপর থেকে নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহারের কারণে ক্রমান্বয়ে অনিশ্চয়তার মুখে পড়ছেন মার্কিন পেস্তা চাষীরা। আন্তর্জাতিক বাজারে ইরানি পেস্তার সঙ্গে প্রতিযোগিতা করে কতোটুকু টিকে থাকা যাবে সেই চিন্তায় আছেন মার্কিন চাষিরা।

pistachio nut

মার্কিন এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, চলতি বছর আবহাওয়া উষ্ণ ও পানির ঘাটতি থাকায় আমেরিকায় পেস্তার উৎপাদন অর্ধেকে নেমে এসেছে। এছাড়া মার্কিন পেস্তার উৎপাদন স্থল ক্যালির্ফোনিয়া কয়েক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি খরায় পড়েছে। এর ফলে চলতি বছর আমেরিকায় পেস্তা উৎপাদন কম।

এদিকে ইতোমধ্যেই মার্কিন বাজারে দখলদারিত্ব ঠেকানোর জন্য ইরানি পেস্তার ওপর তিনশ’ গুণ শুল্ক বসানো হয়েছে। এই হার নিকট ভবিষ্যতে কমবে বলে মনে করছেন না মার্কিন ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড কমিশন।

তবে আমেরিকাকে পেছনে ফেলে ইতোমধ্যেই বিশ্বে বৃহত্তম পেস্তা উৎপাদনকারী দেশে পরিণত হয়েছে ইরান। গত বছরের তুলনায় এ বছর দেশটিতে পেস্তা উৎপাদন ৩০ হাজার টন বেড়েছে। এছাড়া গত বছর ৮০ টনের বেশি পেস্তা রফতানি করে ইরান ১৬২ কোটি ডলার আয় করেছে।

 

আপনি আরও পড়তে পারেন

রাশিয়ার প্রতি ওলাঁদ: আসাদের ওপর থেকে সমর্থন উঠিয়ে নিন

ইউরোপীয় ইউনিয়নে বিশেষ মর্যাদা পাচ্ছে যুক্তরাজ্য

দ. কোরিয়ার সীমান্তের কাছে উ. কোরিয়ার মহড়া

sheikh mujib 2020