advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 57 মিনিট আগে

বিরোধী দলগুলোর তীব্র আপত্তি থাকা সত্ত্বেও বিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি ভারতের লোকসভায় উত্থাপিত হতে যাচ্ছে। সোমবার অমুসলিমদের নাগরিকত্ব দেয়ার লক্ষ্যে এ বিলটি দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ লোকসভায় উপস্থাপন করবেন বলে জানিয়েছে এনডিটিভি।

nrc bill lokshabaবিতর্কিত নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে জনতা

মূলত বাংলাদেশ, পাকিস্তান ও আফগানিস্তান থেকে ভারতে পাড়ি জমানো অমুসলিম শরনার্থীদের নাগরিকত্ব দেয়ার লক্ষ্যেই এ বিলটি সংসদে উত্থাপন করবে বিজেপি সরকার। তবে মুসলিম শরনার্থীদের ক্ষেত্রে কোনো সিদ্ধান্ত নেয়া হয়নি।

বলা হচ্ছে, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলটি আসলে দেশটিতে অবৈধ অভিবাসন বন্ধের লক্ষ্যে কয়েক দশকের পুরনো চুক্তি বাতিল করার একটি কৌশল।

বিলটি লোকসভায় পেশ করার পর আলোচনা হবে। বিজেপির সংখ্যাগরিষ্ঠতা থাকায় সেখান থেকে সহজেই তা পাশ হয়ে যেতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তারপর বিলটি সংসদের উচ্চকক্ষ রাজ্যসভায় উঠবে। সেখানে পাশ হয়ে গেলেই অমুসলিমদের ভারতের নাগরিকত্ব পাওয়ার পথ সহজ হয়ে যাবে।

১৯৫৫ সালে পাশ হওয়া নাগরিকত্ব আইনে উল্লেখ আছে, অন্য দেশে থেকে ভারতে আসা কেউ যদি নাগরিকত্ব চায় সেক্ষেত্রে তাকে কমপক্ষে ১১ বছর এ দেশে বসবাস করতে হবে। পাশাপাশি এর পক্ষে যথেষ্ট প্রমাণ ও নথিপত্র উপস্থাপন করতে হবে।

কিন্তু নতুন করে সংশোধন হতে যাওয়া এ বিলটিতে বলা হয়েছে, ভারতে টানা ৫ বছর ধরে বসবাস করা অমুসলিমরা নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য অবেদন করতে পারবেন।

এদিকে বিজেপি সরকারের তীব্র সমালোচনা করে পশ্চিমবঙ্গের মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, যদি সব সম্প্রদায়ের মানুষকে নাগরিকত্ব দেয়া হয়, তাহলে সেটা মেনে নেয়া যায়। কিন্তু যদি ধর্মের ভিত্তিতে বৈষম্য করা হয়, তাহলে এর বিরুদ্ধে আন্দোলন করা হবে।

sheikh mujib 2020