advertisement
আপনি দেখছেন

বিতর্কিত নাগরিকত্ব আইন পাশের জেরে ভারতজুড়ে যে প্রতিবাদ শুরু হয়েছে তার প্রেক্ষিতে দিল্লির লালকেল্লাসহ আরো বেশ কিছু স্থানে ১৪৪ ধারা জারি করা হয়েছে। কিন্তু তা উপেক্ষা করে বৃহস্পতিবার সকাল থেকেই উত্তাল দিল্লি। মুসলিমবিরোধী হিসেবে আখ্যা পাওয়া এ আইনের বিরুদ্ধে বেঙ্গালুরুতেও প্রতিবাদ-বিক্ষোভ চলছে।

india cab unrest

ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো জানায়, ১৪৪ ধারা ভেঙ্গে বের হওয়া বিক্ষোভকারীদের পুলিশ বাধা দিলে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

এদিকে দিল্লির মান্ডি হাউস চত্বরের পরিবেশও উত্তপ্ত হয়ে উঠলে বিক্ষোভ সামাল দিতে সেখানে র‌্যাপিড অ্যাকশন ফোর্স (র‌্যাফ) মোতায়েন করা হয়।

বিক্ষোভে যোগ দেয়া স্বরাজ ইন্ডিয়ার সর্বভারতীয় সভাপতি যোগেন্দ্র যাদবকেও পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গেছে।

বিক্ষোভে উত্তপ্ত পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দিল্লিতে লালকেল্লা, চাঁদনি চক, জামে মসজিদ, জামিয়া মিলিয়া, শাহিন বাগ, জাসোলা বিহার , মুনিরকাসহ ১৬টি মেট্রো স্টেশন বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

বেঙ্গালুরুতে ১৪৪ ধারা উপেক্ষা করে টাউন হলের সামনে বিক্ষোভকারীরা জড়ো হলে সেখান থেকে ইতিহাসবিদ রামচন্দ্র গুহকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

রামচন্দ্র দাবি করেছেন, সংবিধান নিয়ে সংবাদমাধ্যমের সাথে কথা বলার সময় তাকে আটক করা হয়েছে। আটকের সময় তার হাতে মহাত্মা গান্ধীর একটি প্ল্যাকার্ড ছিল।

কী ছিলো এর আগের নাগরিত্ব আইনে?

১৯৫৫ সালে পাশ হওয়া নাগরিকত্ব আইনে উল্লেখ ছিল, অন্যদেশ থেকে ভারতে আসা কেউ যদি নাগরিকত্ব চায় সেক্ষেত্রে তাকে কমপক্ষে ১১ বছর এ দেশে বসবাস করতে হবে। সেইসঙ্গে এর পক্ষে যথেষ্ট প্রমাণ ও নথিপত্র উপস্থাপন করতে হবে।

নতুন আইনে কী আছে?

সংশোধিত নতুন আইনে ভারতে টানা ৫ বছর ধরে থাকা শুধুমাত্র অমুসলিমরা নাগরিকত্ব পাওয়ার জন্য অবেদন করতে পারবে বলে উল্লেখ করা হয়েছে।

sheikh mujib 2020