advertisement
আপনি দেখছেন

মঙ্গোলিয়ার প্রেসিডেন্ট খলতমা বাতুলগা ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী সগবাটার দামদিন আজ শুক্রবার চীন সফর শেষে নিজ দেশে ফিরে গেছেন। সেখানে তাদের ১৪ দিনের জন্য কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। সফরে তাদের সঙ্গে যেসব শীর্ষ কর্মকর্তারা ছিলেন তাদেরও কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে। শুক্রবার মঙ্গোলিয়ার রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম মন্তসেম এ তথ্য জানায়।

mongolian president

তবে তাদের ঠিক কোথায় কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়েছে সে বিষয়ে নিশ্চিত করে কিছু জানানো হয়নি।

জানা যায়, চলমান পরিস্থিতির মধ্যেই গতকাল বৃহস্পতিবার চীনের রাজধানী বেইজিংয়ে যান মঙ্গোলিয়ার প্রেসিডেন্ট, পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং সরকারের অন্যান্য শীর্ষ কর্মকর্তারা। সফরে তারা চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিন পিং ও প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। এরপর শুক্রবার মঙ্গোলিয়ায় ফিরে আসলে তাদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার ব্যবস্থা করা হয়।

চীনে করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার পর এই প্রথম কোনো রাষ্ট্রিয় প্রধান দেশটিতে সফর করলেন। চীনা প্রেসিডেন্ট বাতুলগা'র এমন সাহসী পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন। মঙ্গোলিয়াকে চীনের সবচেয়ে ভালো বন্ধু হিসেবেও আখ্যা দিয়েছেন।

এদিকে, ভাইরাসটির কেন্দ্রস্থল চীনে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ২ হাজার ৮৫৮ জন। আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ হাজার ৪৩৬ জন। অপরদিকে সুস্থ হয়েছেন ৩৬ হাজার ৪৩৬ জন। বিশ্বব্যাপী ভাইরাসটি ৫৪টি দেশে ছড়িয়ে পড়েছে। চীন ছাড়া সবচেয়ে বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে ইরানে। সেখানে এখন পর্যন্ত ২৬ জন মানুষ মারা গেছে। এছাড়া দক্ষিণ কোরিয়া ও ইতালিতে আশঙ্কাজনকভাবে এ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ছে। দক্ষিণ কোরিয়ায় মারা গেছেন ১৩ জন। আর ইতালিতে ১৭ জন, যা ইউরোপে সর্বোচ্চ।