advertisement
আপনি দেখছেন

চীনে যত মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং মৃত্যুবরণ করেছেন তাদের অধিকাংশই উহানের বাসিন্দা। দেশটির হুবেই প্রদেশের এই শহর থেকেই মহামারি করোনার উৎপত্তি। সেখানে এই প্রাণঘাতী ভাইরাসে কত মানুষের মৃত্যু হয়েছে তা নিয়ে দেখা দিয়েছে ধোঁয়াশা। চীন সরকারের পক্ষ থেকে সংখ্যাটা ৩২০০ বলা হলেও স্থানীয়দের দাবী অনুযায়ী, প্রায় ৪২ হাজার মানুষ মারা গেছেন উহানে!

corora uhan

ডেইলি মেইল তাদের এক প্রতিবেদনে এমনটা জানিয়েছে।

উহানের বাসিন্দারা বলছেন, অসংখ্য মৃতদেহ পুড়িয়ে ফেলা হয়েছে এই শহরে। প্রতি ২৪ ঘণ্টায় পোড়ানো হয়েছে সাড়ে তিন হাজার মৃতদেহ। এভাবে ১২ দিনে পোড়ানো হয়েছে ৪২ হাজার। এপ্রিলের ৫ তারিখে অনুষ্ঠিতব্য কিং মিং উৎসবের আগেই এসব মরদেহের হাড় খুঁজে পাওয়া যাবে বলে স্থানীয়দের বিশ্বাস।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন কর্মকর্তা ডেইলি মেইলকে বলেন, আনুষ্ঠানিক চিকিৎসার আগেই অনেক মানুষ তাদের ঘরের মধ্যে মারা গিয়েছেন। প্রশাসন সেই সংখ্যাটা গোপন করেছে।

উহান শহরে এখন চলছে লকডাউন। সেখানে যাতায়াতের ব্যাপারে ৮ এপ্রিল পর্যন্ত নিষধাজ্ঞা রয়েছে। তবে হুবেই প্রদেশের যারা আক্রান্ত হননি তারা ২৫ মার্চ থেকে বাইরে বের হওয়ার অনুমতি পেয়েছেন।