advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে জ্বালানি তেলের ওপর। মহামারি এই ভাইরাসের কারণে কমে গেছে চাহিদা, তাই দামও নামতে নামতে ভেঙেছে ১৮ বছরের রেকর্ড। গতকাল সোমবার ব্যারেল প্রতি অপরিশোধিত জ্বালানি তেলের দাম নেমে আসে ২২ দশমিক ৫৮ ডলারে। ২০০২ সালের নভেম্বরের পর এমনটা আর কখনো দেখা যায়নি। খবর সিএনএন।

oil opec

পতনের শুরুটা হয় চলতি বছরের প্রথম থেকেই। এভাবে গতমাসে দাম প্রায় অর্ধেকে নেমে আসে। এরপর মার্চে এসে যোগ হয় করোনাভাইরাসের প্রভাব। কমতে কমতে প্রায় শূন্যতে চলে আসে বিমান চলাচল। অনেক কল-কারখানাও উৎপাদন বন্ধ করে দিয়েছে। মানুষ ঘর থেকে বের হচ্ছে না। সবমিলিয়ে চাহিদা কমে যায় জ্বালানি তেলের।

এই পরিস্থিতি উত্তরণে বৈঠকে বসে ওপেক-নন ওপেক দেশগুলো। সিদ্ধান্ত হয়, দিনে ১৫ লাখ ব্যারেল তেলের উৎপাদন কমিয়ে দেওয়া হবে। ওপেক আশা করেছিল, এরমধ্যে ৫ লাখ ব্যারেল উৎপাদন কমাতে রাজি হবে ওপেক প্লাসের নেতৃত্বে থাকা রাশিয়া। কিন্তু সেই আহ্বানে তারা সাড়া দেয়নি। এতে ভেস্তে যায় উৎপাদন কমিয়ে দাম বাড়ানোর পরিকল্পনা।