advertisement
আপনি দেখছেন

মরণঘাতী করোনাভাইরাসের কারণে স্থবির পুরো বিশ্ব। দেশে দেশে কারফিউ, লকডাউন, কোয়ারেন্টাই কিংবা আইসোলেশন। এ অবস্থায় বিশ্বের গুরুত্বপূর্ণ রুটগুলোতে বন্ধ রয়েছ বিমান চলাফল। ফলে আর দশটি কোম্পানির মতো সংকটে পড়েছে বিট্রিশ এয়ারওয়েজ (বিএ)। উদ্ভূত পরিস্থিতিতে কোম্পানিটি ৩ হাজার ৬০০ স্টাফের চাকরি সাময়িকভাবে স্থগিত করতে যাচ্ছে।

british airways staff suspendকরোনাভাইরাসের কারণে বন্ধ ব্রিটিশ এয়ারওয়েজের ফ্লাইট। এ অবস্থায় ৩৬০০ স্টাফকে সাময়িক চাকরিচ্যুৎ করতে যাচ্ছে সংস্থাটি।

তবে এ বিষয়ে ইউনিট ইউনিয়ন ও সংস্থাটির মধ্যে এক সপ্তাহের বেশি সময় ধরে আলোচনা চললেও এখনও চুক্তি সই হয়নি। তবে উভয়পক্ষ এক মোটামোটি একমত হয়েছে বলে জানিয়েছে বিবিসি।

খবরে বলা হয়েছে, বিমান সংস্থাটির কেব্রিন ক্রু, গ্রাউন্ড স্টাফ, প্রকৌশলী এবং যারা সংস্থাটির প্রধান কার্যালয়ে কাজ করছেন তাদের মধ্যে ৮০ শতাংশের চাকরি সাময়িক সময়ের জন্য স্থগিত করা হবে। তবে কাউকেই চূড়ান্ত ছাঁটাই করা হবে না।

তবে যারা সাময়িক চাকরি হারাবেন তারা ব্রিটিশ সরকারের দেওয়া বিশেষ তহবিল থেকে বেতনের একটা অংশ পাবেন। তবে ইউনিট ইউনিয়ন কর্মীদের জন্য আরো বেশি অর্থ দাবি করছে। ফলে এ নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে ব্যাপক দর কষাকষি চলছে।

অ্যাভিয়েশন বিশেষজ্ঞ জন স্ট্রিকল্যান্ড বলছেন, বিএ ও ইউনিট ইউনিয়নের মধ্যে ‘তুমুল বোঝপড়া’ চলছে। তার অর্থ হলো- চূড়ান্ত চুক্তিতে পৌঁছেতে আরো কিছু সময় লাগবে।

অবশ্য, কর্মীদের আগেই পাইলটদের সঙ্গে দুই মাস অর্ধেক বেতন দেওয়ার শর্তে একটি চুক্তি করেছে বিমান সংস্থাটি।