advertisement
আপনি দেখছেন

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব মোকাবেলা ও অর্থনৈতিক বিপর্যয় ঠেকাতে এক অভিনব সিদ্ধান্ত নিয়েছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রীসহ সব সাংসদ, রাষ্ট্রপতি এবং রাজ্যপালরা। এখন থেকে আগামী এক বছর নিজেদের বেতনের ৩০ শতাংশ তারা প্রধান‌মন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে দান করবেন। আজ সোমবার দেশটির কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। খবর ইকনোমিক টাইমস।

narendra modi and ram nath kovindভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও রাষ্ট্রপতি রাম নাথ কোবিন্দ (ডানে)

কেন্দ্রীয় সরকারের মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকর ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেন, চলতি এপ্রিল থেকেই সরকারের উচ্চপদস্থ এসব কর্মকর্তার বেতনের ৩০ শতাংশ প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে চলে যাবে। এ অর্থ করোনাভাইরাসের কারণে যেসব ক্ষতি হয়েছে তার পেছনে ব্যয় করা হবে।

তিনি আরো বলেন, ভারতীয় সাংসদদের উন্নয়ন তহবিলের অর্থও দুই বছরের জন্য অর্থাৎ ২০২২ সাল পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে জমা হবে।

সোমবার এক ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ভারতের কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভা বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়। বৈঠকে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সবাইকে করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে দীর্ঘ লড়াইয়ের জন্য প্রস্তুত হওয়ার আহ্বান জানান।

ভারতে প্রাণঘাতী ভাইরাসের সংক্রমণ দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে। লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। এখন পর্যন্ত সেখানে চার হাজার ৩১৪ জনের দেহে করোনাভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে। মৃত্যু হয়েছে ১১৮ জনের।