advertisement
আপনি দেখছেন

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সেন্টার ফর ডিসিস কন্টোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (সিডিসি) বলছে, মরণঘাতী করোনাভাইরাসে সংক্রমিত কোনো গর্ভবতী সন্তানের জন্ম দিলে সেই সন্তানেরও ভাইরাস শনাক্তকরণ টেস্ট করাতে হবে। দেশটিতে নতুন ভাইরাস সংক্রান্ত নীতিমালায় এ কথা জানিয়েছে সংস্থাটি।

baby new bornপ্রতীকী ছবি

যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল হেলথ এজেন্সি বিবৃতিতে জানায়, করোনা আক্রান্ত মায়ের থেকে জন্ম নেয়া শিশুকে অবশ্যই টেস্ট করাতে হবে।

সিডিসি বলছে, আমাদের কাছে তথ্যের অনেক ঘাটতি আছে। তবে মনে হচ্ছে, এক বছরের নিচে থাকা শিশুরা বড়দের তুলনায় বেশি ঝুঁকিতে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর এদের দেহে আমরা বিভিন্ন উপসর্গ দেখেছি। এর মধ্যে অন্যতম জ্বর, কাশি, বমি, ডায়রিয়া, অতিরিক্ত তন্দ্রা, শ্বাস-প্রশ্বাস দ্রুত হয়ে যাওয়া।

তারা বলছে, শিশুদের মধ্যে এই ভাইরাসের কারণে কী কী সমস্যা দেখা দেয় তা এখনো পরিষ্কার না। তবে অনেক নবজাতককেই জন্মের পর ভেন্টিলেশন দিতে হয়েছে। কারণ তাদের ফুসফুসে সংক্রমণ পাওয়া গেছে। বিষয়টি অবশ্যই আতঙ্কের।

ফক্স নিউজ বলছে, এই কারণেই সংস্থাটি থেকে বলা হচ্ছে, করোনা আক্রান্ত মায়ের থেকে জন্ম নেয়া শিশুর কোনো লক্ষণ থাকুক বা না থাকুক তার টেস্ট করাতে হবে। তাদের বয়স একদিন হওয়ার আগেই সেই টেস্ট করাতে হবে।