advertisement
আপনি দেখছেন

চায়ের নেশা বলে কথা। সে রোগী হোক, আর স্বাভাবিক লোক হোক। চা না খেলে মাথা যেন ঠিক থাকে না। তাই বলে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার পরও! তাও আবার বয়স সত্তরের কোটা পেরিয়েছে। হাসপাতালে চা চেয়েও না পেয়ে অবশেষে দোকানে চলে গেলেন তিনি। এখন ওই চা দোকানিই আতঙ্কে।

tea addiction indiaচায়ের নেশায় হাসপাতাল ছাড়লেন করোনারোগী

সম্প্রতি এমন ঘটনা ঘটেছে ভারতের ব্যাঙ্গালুরুর নাগারভাবিতে। করোনায় আক্রান্ত হয়ে সেখানকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ওই বৃদ্ধ। কিন্তু ঘড়িতে ভোর ৫টা বাজতে না বাজতেই হাসপাতালে চা চেয়ে বসতেন তিনি। কিন্তু না পেয়ে এক পর্যায়ে নিজেই বেরিয়ে পড়েন চায়ের দোকানের খোঁজে।

হাসপাতাল থেকে কিছু দূর অগ্রসর হতেই পেয়েও যান একটি চায়ের দোকান। সেখানেই ধোঁয়া উঠা গরম চায়ে চুমুক দিতে থাকেন তিনি। এ সময় একজন তার হাতে স্যালাইনের নল দেখতে পান এবং জানতে চান কী হয়েছে। বৃদ্ধের সাফ জবাব, তার করোনা হয়েছে। হাসপাতালে চা না পাওয়ায় বাধ্য হয়ে বেরিয়ে পড়েছেন।

বৃদ্ধের জবাবে চায়ের দোকানে থাকা সবাই চমকে যান। ওই চায়ের দোকানিই হাসপাতালে খবর দেন। পরে হাসপাতালের কর্মীরা এসে তাকে নিয়ে যান। কিন্তু আতঙ্কে আছেন চায়ের দোকানিসহ ওই রোগীর সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিরা। সংক্রমণের শঙ্কায় দিন কাটছে তাদের।

sheikh mujib 2020