advertisement
আপনি দেখছেন

ভারি বৃষ্টির কারণে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনা ঘটেছে নেপালে। এতে এখন পর্যন্ত ৪০ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এখনো অনেকে নিখোঁজ আছেন বলে জানা গেছে। স্থানীয় কর্তৃপক্ষ শনিবার এ তথ্য জানিয়েছে।

floods landslides in nepal01বন্যা-ভূমিধসে নেপালে ৪০ জনের প্রাণহানি

রয়টার্সের বরাতে জানা যায়, নেপালের পশ্চিমাঞ্চলে কয়েক হাজার মানুষ ভারি বৃষ্টির কারণে সৃষ্ট আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসের কারণে ব্যাপক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

রাজধানী কাঠমুন্ডু থেকে ২০০ কিলোমিটার উত্তর-পশ্চিমে অবস্থিত মায়াগদি জেলা চরম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সেখানকার জেলা প্রশাসক জিয়ান নাথ ধাকাল বলেন, এখন পর্যন্ত ২০ জনের মৃত্যুর খবর আমরা নিশ্চিত করতে পেরেছি। এখন পর্যন্ত ১৩ জন নিখোঁজ আছে। শুক্রবারের এই ঘটনায় অনেক বাড়িঘর ধ্বংস হয়ে গেছে।

floods landslides in nepalবন্যা-ভূমিধসে নেপালে ৪০ জনের প্রাণহানি

তিনি বলেন, উদ্ধারকর্মীরা মায়াগদি জেলার নিখোঁজ হওয়া ব্যক্তিদের খুঁজে বেড়াচ্ছে। ইতোমধ্যে হেলিকপ্টার যোগে ৫০ জন আহতকে কাঠমুন্ডুর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এছাড়া আশপাশের কিছু হাসপাতালে ১১ জন চিকিৎসা নিচ্ছেন।

রয়টার্স জানায়, মায়াগদি জেলার পার্শ্ববর্তী কাসকি জেলায় ৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। জাজারকোট জেলাতেও ৭ জনের মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে।

জাজারকোট জেলার পুলিশ কর্মকর্তা কিশোর স্রেষ্ঠা বলেন, জেলার ৮ জন বন্যার পানিতে ভেসে গেছেন। তাদের অনুসন্ধান করে যাচ্ছি আমরা।

এছাড়া নেপালের গুলমি, লামজাং ও সিন্ধুপালচক এই তিন জেলায় আরো ৬ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত হওয়া গেছে।

প্রসঙ্গত, প্রতি বছরই জুন থেকে সেপ্টেম্বরে নেপালে বন্যা এবং ভূমিধসের ঘটনা ঘটে থাকে। ভারতের সীমান্তঘেঁষা কাশি নদীতে এ সময় মারাত্মক বন্যার ঘটনা ঘটে। যা পূর্ব ভারতের বিহারেও প্রভাব ফেলে।

sheikh mujib 2020