advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যার ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলার সকল কার্যক্রম সমাপ্ত করেছেন আদালত। একই সঙ্গে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর মামলার চূড়ান্ত রায় ঘোষণার দিন ধার্য করা হয়েছে। বুধবার বিশেষ সিবিআই (কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা) আদালতের বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার যাদব এ আদেশ দেন।

babri mosque ayodhyaঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ভাঙার দৃশ্য

পাশাপাশি রায়ের দিন সকল অভিযুক্তকে আদালতে হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন আদালত। এর আগে সেপ্টেম্বরের শুরুর দিকে অভিযুক্তদের জবানবন্দি রেকর্ড করে মামলার সকল কার্যক্রম সমাপ্ত করা হয়। এর মধ্য দিয়ে দীর্ঘ প্রায় ২৮ বছর পর ঐতিহাসিক এই মামলার রায় ঘোষণা হতে চলেছে।

এ বিষয়ে সিবিআইয়ের আইনজীবী ললিত সিং বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে চলমান এই মামলার শুনানি শেষে গত ১ সেপ্টেম্বর প্রসিকিউশন ও বিবাদী উভয়পক্ষের জবানবন্দি রেকর্ড শেষ করা হয়। এরপর থেকেই বিশেষ বিচারপতি রায় লেখা শুরু করেন এবং ফলশ্রুতিতে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর তা ঘোষণা করা হবে।

এই মামলায় মোট ৩৫১ জন সাক্ষী এবং ৬০০টি তথ্যপ্রমাণ আদালতে পেশ করে ভারতের কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা সিবিআই, যোগ করেন ললিত সিং।

indian courtভারতের সুপ্রিম কোর্ট

ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদ ধ্বংস মামলায় ৩২ জনকে অভিযুক্ত করা হয়েছিল। তাদের মধ্যে অন্যতম হলেন- ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) সিনিয়র নেতা ও তৎকালীন উপ-প্রধানমন্ত্রী লালকৃষ্ণ আডবানী, বিজেপি নেতা মুরলী মনোহর যোশি, সাবেক মুখ্যমন্ত্রী কল্যাণ সিং, বিনয় কাটিয়ার, উমা ভারতী, মোহন্ত নৃত্য গোপাল দাস।

রায় ঘোষণার দিন ধার্য করা প্রসঙ্গে রেডিও তেহরানকে দেয়া এক প্রতিক্রিয়ায় সারা বাংলা সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মাদ কামরুজ্জামান বলেন, মুসলমানদের ধর্মীয় স্বাধীনতার ওপর আঘাত হেনে সেদিন যারা পবিত্র মসজিদ গুঁড়িয়ে দিয়েছিল, তাদেরকে অপরাধী হিসেবে আদালত সাব্যস্ত করবেন এবং সাজা দেবেন বলে আশা করছি। আদালতের প্রতি আমাদের পূর্ণ আস্থা আছে।

sheikh mujib 2020