advertisement
আপনি দেখছেন

এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে যুক্তরাষ্ট্র ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে পারে বলে সম্প্রতি খবর প্রকাশ হয়েছে। এ ঘটনায় হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে রাশিয়া। তারা বলছে, ওয়াশিংটনের এ ধরনের উস্কানির বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেবে মস্কো।

us missile test 5 augযুক্তরাষ্ট্রের ক্ষেপণাস্ত্র পরীক্ষা, পুরনো ছবি

যুক্তরাষ্ট্রে নিযুক্ত রুশ হাইকমিশনার আনাতোলি অ্যান্তোনভ বলেন, ওয়াশিংটন যদি এশিয়া-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করে, তাহলে বসে থাকবে না মস্কো। এ ধরনের উস্কানির বিরুদ্ধে পাল্টা ব্যবস্থা নেয়া হবে।

তিনি বলেন, ওই অঞ্চলে মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন হলে, তার পাল্লা রাশিয়া ফেডারেশন পর্যন্ত পৌঁছাবে। এমনকি মস্কোর সমস্ত কৌশলগত পরমাণু অস্ত্র মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্রের আওতায় চলে আসবে।

রুশ টেলিভিশন চ্যানেল ওয়ানকে দেয়া সাক্ষাৎকারে এই কূটনীতিক আরো বলেন, তিনি নিশ্চিত তথ্য পেয়েছেন যে, মার্কিন ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করা হবে। যদি এমনটা হয়, তাহলে রাশিয়ার পক্ষ থেকে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

trump putin first meetingরুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন ও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প

এ সময় মার্কিন নীতি নির্ধারকদের ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েনের পরিকল্পনা বাদ দিয়ে সংলাপ শুরুর আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, এটা সংঘাতের বিকল্প হতে পারে।

অবশ্য মার্কিনিরা মনে করেন যে, তারা অস্ত্র প্রতিযোগিতায় বিজয়ী হবেন। এমনকি তারা এটাও বিশ্বাস করেন যে, পূর্বের নীতি অনুসরণ করে রুশ অর্থনীতিকে গভীর খাদের মধ্যে ফেলা সম্ভব। কিন্তু এই পথ বিপজ্জনক। তাদের সংলাপ শুরুর আহ্বান করবো। এক্ষেত্রে মার্কিন রাজনীতিবিদদের মধ্যে অন্তত অস্ত্র নিয়ন্ত্রণের দায়িত্বে থাকা একজন ব্যক্তির উদ্যোগ নেয়া উচিত।

sheikh mujib 2020