advertisement
আপনি দেখছেন

যুদ্ধ-বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে গত ১৪ বছরে প্রতিদিন গড়ে পাঁচজন করে শিশু মৃত্যুবরণ করেছে অথবা বিকলাঙ্গ হয়েছে। একটি দাতাসংস্থার প্রতিবেদনে উঠে এসেছে এই করুণ সত্য।

afghan children are suffering immensely

জাতিসংঘের তথ্য-উপাত্ত থেকে জানা যায়, ২০০৫ সাল থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত ২৬,০২৫ জন শিশু মৃত্যুবরণ করেছে অথবা বিকলাঙ্গ হয়েছে।

জেনেভায় অনুষ্ঠিতব্য একটি সংলাপের আগে দাতাসংস্থাটি আফগানিস্তানের শিশুদের ভবিষ্যত নিরাপদ করার আহবান জানিয়েছে।

তালেবান ও আফগান সরকারের মধ্যকার চলমান শান্তি প্রক্রিয়ার মধ্যেও দেশটিতে সহিংসতা বৃদ্ধি পাচ্ছে। সেভ দ্য চিলড্রেনের মতে আফগানিস্তান হলো শিশুদের জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ঙ্কর দেশগুলোর একটি।

২০১৯ সালে অন্তত ৮৭৪ জান আফগান শিশু মারা গেছে এবং ২,২৭৫ জন বিকলাঙ্গ হয়েছে। এই তথ্য শুক্রবার প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জানা গেছে।

গত বছর যতো আফগান শিশু মারা গেছে বা বিকলাঙ্গের শিকার হয়েছে, তার তিন ভাগের দুই ভাগের বেশি ছিলো ছেলে শিশু। প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, “সরকারপক্ষীয় ও সরকার বিরোধী পক্ষের বিরোধ এবং বোমাবাজিতে এই শিশুদের করুণ পরিণতি হয়েছে।”

প্রতিবেদনটিতে বলা হয়েছে, স্কুলগুলোতে নিয়মিত হামলা করা হচ্ছে। যাতে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ছে যুক্তরাষ্ট্রের মদদপ্রাপ্ত আফগান বাহিনী, যুক্তরাষ্ট্রের বাহিনী ও তালেবান এবং অন্যান্য বিদ্রোহী গোষ্ঠি।

সেভ দ্য চিলড্রেন বলছে, ২০১৭ থেকে ২০১৯ সাল পর্যন্ত সময়ে অন্তত ৩০০ বার বিভিন্ন স্কুলে আক্রমণ করা হয়েছে।

ক্রিস নিয়ামানডি, আফগানিস্তানে সেভ দ্য চিলড্রেনের কান্ট্রি ডিরেক্টর, বলেন, “এমন একটি জীবনের কথা ভেবে দেখুন যখন আপনি প্রতিটি মুহূর্তে আপনার সন্তানের মৃত্যুর ভয়ে কাতর হয়ে থাকবেন। এটাই বহু আফগান পিতামাতার জীবনের এক করুণ সত্য যারা যুদ্ধের ভয়াবহতায় তাদের সন্তান হারিয়েছেন বা তাদের সন্তান বিকলাঙ্গ হয়ে গেছে।”

সোমবার থেকে জেনেভায় দাতা সংস্থাদের উপস্থিতিতে শুরু হচ্ছে আফগানিস্তান কনফারেন্স। এই আয়োজনের আগে আফগানিস্তানের শিশুদের ভবিষ্যত নিশ্চিতের জন্য কাজ করার আহবান জানিয়েছে বিভিন্ন দাতাসংস্থা।

sheikh mujib 2020