advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের উত্তর প্রদেশের অযোধ্যায় ঐতিহাসিক বাবরি মসজিদের বিকল্প হিসেবে নতুন বরাদ্দকৃত জায়গায় মসজিদ স্থাপনা নির্মাণ প্রকল্প আগামী ২৬ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে। এ তথ্য জানিয়েছে ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন ট্রাস্ট।

babri mosque uniqeপ্রকল্পের দৃষ্টিনন্দন ডিজাইন

আল জাজিরার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, প্রকল্পটি ১৯৯২ সালে উগ্রবাদ হিন্দুদের বাবরি মসজিদ ভেঙে ফেলা সংক্রান্ত একটি মামলা নিষ্পত্তির অংশ। ওই সময় ভারতবর্ষের সবচেয়ে ভয়াবহ ধর্মীয় সহিংসতা হয়েছিল। যাতে ২ হাজারেরও বেশি মানুষ নিহত এবং অসংখ্য আহত হয়েছিলেন। পরে দীর্ঘ আইনি লড়াই শেষে ২০১৯ সালে এটির নিষ্পত্তি হয়।

ক্ষমতাসীন ভারতীয় জনতা পার্টিসহ (বিজেপি) ডানপন্থী দলগুলো দাবি করে, মসজিদটির স্থলে হিন্দু দেবতা ভগবান রামের জন্ম হয়েছিল। আর সেই স্থানেই ১৬ শ শতকে মোগল সম্রাট বাবর বাবরি মসজিদ নির্মাণ করেছিলেন।

babri mosque indiaবাবরি মসজিদ, এই স্থানে এখন রাম মন্দির নির্মাণ হচ্ছে

দীর্ঘ আইনি লড়াই শেষে ২০১৯ সালের নভেম্বরে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট এই স্থানে রাম মন্দির নির্মাণের জন্য হিন্দু ট্রাস্টকে অনুমতি দেয়। আর দূরের একটি বিকল্প জায়গায় মসজিদ নির্মাণের জন্য সরকার নিয়ন্ত্রিত সুন্নি কেন্দ্রীয় ওয়াকফ বোর্ডকে জমি দেন আদালত। বাবরি মসজিদ থেকে এটি ২৫ কিলোমিটার (১৫ মাইল) দূরে।

এর পরই বোর্ড মসজিদটির নির্মাণ কাজ সম্পাদন করতে ইন্দো-ইসলামিক কালচারাল ফাউন্ডেশন (আইআইসিএফ) ট্রাস্ট গঠনের ঘোষণা দেয়।

রোববার এক বিবৃতিতে আইআইসিএফ জানিয়েছে, আগামী ২৬ জানুয়ারি ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন মসজিদটির কাজ আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু করা হবে।

তবে নতুন এই প্রকল্পে বাবরি মসজিদের আদলে পুরনো কোনো কিছুই থাকবে না। সম্পূর্ণ নতুন আঙ্গিকে এটি নির্মাণ করা হবে। যেখানে থাকবে একটি হাসপাতাল, যাদুঘর, গ্রন্থাগার, কমিউনিটি কিচেন, ইন্দো-ইসলামিক সাংস্কৃতিক গবেষণা কেন্দ্র, একটি প্রকাশনা ঘর এবং একটি মসজিদ।

sheikh mujib 2020