advertisement
আপনি দেখছেন

পূর্ব জেরুজালেমের পবিত্র আল-আকসা মসজিদের ভেতরে ফের সাড়াশি অভিযান (ক্র্যাকডাউন) চালিয়েছে দখলদার ইসরায়েলি সেনারা। এতে কমপক্ষে ৯০ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো খবর দিয়েছে।

al aqsa crackdown palestine

কাতারভিত্তিক গণমাধ্যম আলজাজিরা জানিয়েছে, আল-আকসা মসজিদে ঢুকে ইসরায়েলি সেনারা অভিযান চালিয়েছে। এতে অন্তত ৯০ ফিলিস্তিনি আহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনিদের উচ্ছেদসহ বিভিন্ন দাবিতে মসজিদ কম্পাউন্ডে বিক্ষোভ করছেন ফিলিস্তিনিরা।

এর আগে শনিবার রাতে পবিত্র শবে কদর বা লাইলাতুল কদর উপলক্ষে প্রায় ৯০ হাজার ফিলিস্তিনি আল-আকসা মসজিদে নামাজ আদায় করেন। তার আগেও বর্বর অভিযান চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। ওই সময় দুই শতাধিক ফিলিস্তিনি আহত হন। সর্বশেষ অভিযানের পর পরিস্থিতি আরো খারাপ হতে পারে বলে উল্লেখ করেছে আলজাজিরা।

এদিকে, ইসরায়েলি গণমাধ্যম ডেইলি হারেৎজ জানিয়েছে, ইসরায়েলি পুলিশ টেম্পল মাউন্ট তথা আল-আকসা মসজিদ কম্পাউন্ডে অভিযান চালাচ্ছে।

al aqsa crackdown palestine inner

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে এ সংক্রান্ত একটি ছোট ভিডিও ছড়িয়ে পড়েছে। সেখানে দেখা যায়, আল-আকসা মসজিদে অবস্থানরত ফিলিস্তিনিদের লক্ষ্য করে টিয়ারশেল, রাবার বুলেট ও স্টান গ্রেনেড ছুড়ছে ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনী। এর জবাবে ফিলিস্তিনিরা ইট-পাটকেল নিক্ষেপ করছেন।

প্রসঙ্গত, ইসরায়েলের পূর্ব জেরুজালম দখল উদযাপন উপলক্ষে ইসরায়েলি বসতি স্থাপনকারীরা (সেটলার) আল-আকসা কম্পাউন্ডে প্রবেশ করতে গেলে ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। পরবর্তীতে তার সংঘর্ষে রূপ নেয়।

ফিলিস্তিন রেড ক্রিসেন্ট দাবি করেছে, সর্বশেষ অভিযানে কয়েক শ বিক্ষোভকারী আহত হয়েছেন। এর মধ্যে ৬ জন সাংবাদিক রয়েছেন। আহতদের মধ্যে অন্তত ৭০ জনকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

al aqsa crackdown palestine 1

জানা যায়, পূর্ব জেরুজালেমের শেখ জাররাহ এলাকা থেকে ফিলিস্তিনি বাসিন্দাদের উচ্ছেদ করছে ইসরায়েল। এ নিয়ে ফিলিস্তিনিরা প্রতিবাদ করলে রমজান মাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। এতে চড়াও হয় ইসরায়েলি বাহিনী।

এর আগে চলমান উত্তেজনার মধ্যেই গত ৭ ও ৮ মে আল-আকসা মসজিদে মুসল্লিদের ওপর হামলা চালায় ইসরায়েলি বাহিনী। এতে কয়েক শ মুসল্লি আহত হন।

ইসরায়েলের এই বর্বর হামলার নিন্দা জানিয়েছে সৌদি আরব ও তুরস্কসহ মুসলিম দেশগুলোর নেতৃবৃন্দ। এ ছাড়া এ ঘটনায় ‘উদ্বেগ’ জানিয়েছে দুই পক্ষকে সংযত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র।