advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতের অন্যান্য রাজ্যের মতো পশ্চিমবঙ্গেও মরণঘাতী করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু বেড়ে গেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যটিতে ১৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনার সংক্রমণ শুরুর পর থেকে যা এ পর্যন্ত সর্বোচ্চ। এই যখন অবস্থা তখন পশ্চিমবঙ্গে দুই সপ্তাহের কঠোর তথা সর্বাত্মক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।

west bengal locdown home

আজ শনিবার রাজ্য সরকারের মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় এই লকডাউন ঘোষণা করেন বলে ভারতীয় গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছে। লকডাউন কার্যকর হবে আগামীকাল রোববার (১৬ মে) সকাল ৬টা থেকে। আর তা বহাল থাকবে আগামী ৩০ মে পর্যন্ত।

এনডিটিভির প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শনিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে রাজ্যের মুখ্যসচিব জানান, লকডাউন চলাকালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশাপাশি বেসরকারি অফিস ও প্রতিষ্ঠান, বিনোদন কেন্দ্র, শপিংমল, রেস্টুরেন্ট, সুইমিংপুল, বিউটি পার্লার বন্ধ থাকবে। তবে জরুরি পরিষেবা এর আওতায় পড়বে না।

এ সময় আরো জানানো হয়, লকডাউনের মধ্যে সবজি, ফল, মুদিখানা, দুধ ও মাংসের দোকান সকাল ৭টা থেকে ১০টা পর্যন্ত খোলা থাকবে। আর সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত খোলা থাকবে মিষ্টির দোকান।

west bengal locdown

অন্যদিকে, লকডাউন চলাকালে বন্ধ থাকবে লোকাল ট্রেন, মেট্রো, বাস, লঞ্চ সার্ভিস। এ ছাড়া পার্ক ও চিড়িয়াখানাও বন্ধ থাকবে। খাদ্য সামগ্রীর ট্রাক ছাড়া অন্য কোনো ট্রাক রাজ্যে চলাচল করতে পারবে না।

লকডাউনের নিষেধাজ্ঞায় আরো বলা হয়েছে, শিল্প-কারখানা বন্ধ থাকবে। তবে প্রতি শিফটে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে চা-বাগান এবং প্রতি শিফটে ৩০ শতাংশ কর্মী নিয়ে জুট মিলে কাজ চলবে।