advertisement
আপনি দেখছেন

গাজা ও পশ্চিম তীরে দখলদার ইসরায়েলের নির্বিচার বিমান হামলা ও অবরোধের প্রেক্ষাপটে ফিলিস্তিনি জনগণের পাশে থাকা এবং আগের সব ধরনের সহযোগিতা অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়েছে মালয়েশিয়া। সেইসঙ্গে দ্বিপক্ষীয় সম্পর্ক রক্ষার কথাও জানিয়েছে দেশটি।

malaysian pm tan sri muhyiddin yassin

মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী তান শ্রী মুহিদ্দিন ইয়াসিন আজ শনিবার এক বিশেষ বার্তায় এ ঘোষণা দেন। একই সঙ্গে ইসরায়েলের বর্বর হামলা থেকে ফিলিস্তিনিদের রক্ষায় কঠোর অবস্থান গ্রহণেরও আহ্বান জানান।

মালয়েশীয় প্রধানমন্ত্রী বলেন, পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের তত্ত্বাবধানে হিউম্যানিস্টিস্ট ট্রাস্ট ফান্ডের (একেএআরপি) মাধ্যমে মালয়েশিয়া প্যালেস্টাইনের জনগণের জন্য গত বছর আল-আকসা মসজিদে ১০ হাজার ডলার সহায়তা করা হয়েছে।

অন্যদিকে, জর্ডানে একটি বিশেষ চার্টার্ড বিমানের মাধ্যমে গত বছরের ১০ মে ফিলিস্তিনিদের সহায়তায় ১০ লাখ ফেস মাস্ক, ৫০০ ফেস শিল্ড এবং ৫ লাখ রাবার গ্লাভসসহ চিকিৎসা সরঞ্জাম পাঠিয়েছে মালয়েশিয়ার সরকার। এই ধরনের সহযোগিতা আগামী দিনেও অব্যাহত থাকবে, বলেন মুহিদ্দিন।

israel air raid on gaza

এদিকে, গত কয়েক দিন ধরে ফিলিস্তিনে যে আগ্রাসন ইসরায়েল চালাচ্ছে তার বিরুদ্ধে কঠোর পদক্ষেপ নিতে আগামীকাল রোববার জরুরি ভার্চুয়াল বৈঠকে বসতে যাচ্ছে ওআইসি। এতে মালয়েশিয়ার পক্ষে প্রতিনিধিত্ব করবেন দেশটির পররাষ্ট্রমন্ত্রী দাতুক সেরি হিশামুদ্দিন তুন হুসেইন।

এ ব্যাপারে মালয়েশীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, ইসরায়েলি আগ্রাসনের বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনের জনগণের পাশে থাকবে তার দেশ। এ বিষয়ে মালয়েশিয়া দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার মুসলিম দেশগুলোর মধ্যে ঐকমত্যে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে।

এ লক্ষ্যে ইন্দোনেশিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেটনো মার্সুডি এবং ব্রুনাইয়ের পররাষ্ট্র বিষয়ক মন্ত্রী দাতুক সেরি সেতিয়া হাজী ইরানওয়ান মোহাম্মদ ইউসুফের সঙ্গে যোগাযোগ করা হচ্ছে। আমরা সম্মিলিতভাবে ফিলিস্তিনি জনগণের ওপর ইসরায়েলি হামলার তীব্র নিন্দা জানাই এবং অবিলম্বে তা বন্ধের আহ্বান জানাই, বলেন হিশামুদ্দিন তুন হুসেইন।