advertisement
আপনি দেখছেন

ভারত সরকারের দেয়া হিসাবমতে, দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় মারা গেছে চার লাখের কিছুটা বেশি। কিন্তু সম্প্রতি এক গবেষণায় এসেছে, প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যা এর দশগুণ ছাড়িয়ে যেতে পারে, অর্থাৎ প্রকৃত মৃত্যুর সংখ্যাটা হতে পারে ৩৪ লাখ থেকে ৪৯ লাখের মধ্যে। এ গবেষণা নিয়ে ভারতজুড়ে ব্যাপক তোলপাড় শুরু হয়ে গেছে।

india 1 1করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া ব্যক্তির চিতার পাশে এক স্বজনের শোক

যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক সেন্ট্রাল ফর গ্লোবাল ডেভেলপমেন্ট তাদের সাম্প্রতিক এ গবেষণায় এ তথ্য জানিয়েছে। তারা দাবি করছে, ভারত সরকার ব্যাপকভাবে করোনায় মৃত্যুর তথ্য লুকিয়েছে। যেখানে করোনায় প্রায় ৫০ লক্ষ মানুষের মৃত্যুর কথা পাওয়া যাচ্ছে, সেখানে ভারতের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় এখন পর্যন্ত চার লাখ ১৪ হাজার মানুষের মৃত্যুর কথা জানিয়েছে।

এ ব্যাপারে দেশটির নতুন স্বাস্থ্যমন্ত্রী মানসুখ মান্দাভিয়া অবশ্য বলছেন, আমাদের তো এ মৃত্যুর সংখ্যা লুকানোর কিছু নেই। সরকার সারা দেশের রাজ্যগুলো থেকে প্রাপ্ত তথ্য নিয়ে মৃত্যুর সংখ্যাটি জানিয়ে দেয়। সরকার কখনোই এক্ষেত্রে মৃত্যু সংখ্যা কমিয়ে দেয়ার ব্যাপারে কোনো নির্দেশনা দেয়নি।

india 2 2শোকে বিহ্বল এক ভারতীয় নারী

তবে দ্য সেন্টার ফর গ্লোবাল ডেভেলপমেন্ট স্ট্যাডি মৃত্যুর প্রকৃত সংখ্যা বের করতে তিনটি পদ্ধতি ব্যবহারের কথা জানিয়ে বলে, যেভাবেই হোক না কেন, করোনায় ভারতে মৃত্যু কোনোভাবেই শত বা হাজারের কোটায় নয়, বরং সেটা হচ্ছে মিলিয়নের কোটায়।

এর আগেও করোনায় মৃত্যু নিয়ে ভারত সরকার আন্তর্জাতিক সাময়িকী ‘দ্য ইকোনমিস্টে’র সঙ্গে বিতর্কে জড়িয়ে পড়েছিল। এক গবেষকের সমীক্ষাকে ভিত্তি করে করে ওই আলোচিত প্রতিবেদনে বলা হয়েছিল, ভারত সরকার দেশে যে পরিমাণ মৃত্যুর কথা জানাচ্ছে, আসল মৃত্যু তার চেয়ে প্রায় ছয়-সাতগুণ বেশি হতে পারে। ওই প্রতিবেদনের জবাব দিতে গিয়ে ভারত সরকার বলেছিল, প্রতিবেদনটি সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।

এর আগে নিউ ইয়র্ক টাইমসের বিরুদ্ধেও একই ধরনের অভিযোগ এনেছিল ভারত সরকার।

অবশ্য শুধু ভারত নয়, বিশ্বের অনেক দেশের বিরুদ্ধেই করোনায় মৃতদের সংখ্যা নিয়ে লুকোচুরি খেলার অভিযোগ রয়েছে।