advertisement
আপনি দেখছেন

ব্রিটেনে স্টার্লিং পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্ট্রাল মসজিদের নাম অন্তর্ভূক্ত হয়েছে। এটি লন্ডন-ইউরোপের প্রথম পরিবেশবান্ধব মসজিদ। নতুন সেরা ভবনের জন্য এ পুরস্কার দেয়া হয়। লন্ডন ভিত্তিক আর্কিটেক্টের সংস্থা, রয়েল ইনস্টিটিউট অফ ব্রিটিশ আর্কিটেক্টস এ তালিকা প্রকাশ করে। সংস্থাটির তরফ থেকে জানানো হয়েছে, স্থাপনাটি জুরি সদস্যদের অভিভূত করেছে।

cambridge central mosqueকেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় সেন্ট্রাল মসজিদ

পুরস্কারের জন্য আরো যে পাঁচটি ভবন মনোনীত হয়েছে সেগুলি হচ্ছে, টিন্টাগেল ক্যাসেল ফুটব্রিজ, উইন্ডারমেয়ার জেটি মিউজিয়াম, কিংস্টন ইউনিভার্সিটি লন্ডন টাউন হাউস, কী ওয়ার্কার হাউজিং (এডিংটন, কেমব্রিজ) এবং ১৫ ক্লার্কেনওয়েল ক্লোজ হল। আজ বৃহস্পতিবার চূড়ান্ত বিজয়ী স্থাপনার নাম ঘোষণা করা হবে।

কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের এই সেন্ট্রাল মসজিদটি ইউরোপসহ সারা বিশ্বে সাড়া জাগিয়েছে। পরিবেশবান্ধব নির্মাণ হওয়ায় এতে ব্যবহৃত উপকরণ থেকে কার্বন নিঃসরণের পরিমাণ শূন্য। মসজিদটিতে দিনের বেলা বিদ্যুৎ ব্যবহারের প্রয়োজন পড়ে না। প্রাকৃতিক আলো প্রবেশের ব্যবস্থা রয়েছে। তাছাড়া মসজিদের ছাদে বৃষ্টির পানি প্রক্রিয়াজাতের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। এতে ভেতরের অংশে বেশ ঠান্ডা অনুভূত হয়।

cambridge central mosque insightকেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয় সেন্ট্রাল মসজিদের ভেতরের অংশ

মসজিদটির নকশা করেছেন লন্ডনের প্রখ্যাত ইকো স্থাপত্যশিল্পী মার্ক বারফিল্ড। তিনি লন্ডন আইয়েরও স্থাপত্যশিল্পী।

মসজিদটির প্রতিষ্ঠাতা কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ইসলামিক স্টাডিজের অধ্যাপক ড. টিমোথি উইন্টার। ২০০৮ সালে মসজিদটি নির্মাণের উদ্যোগ নেন তিনি। পরে ২০০৯ সালে কেমব্রিজের মিল রোডে প্রায় ৪ মিলিয়ন পাউন্ড ব্যয়ে মসজিদটির জন্য ১ একর জমি কেনা হয়।

প্রায় আট বছরের গবেষণা এবং তহবিল সংগ্রহ শেষে ২০১৬ সালের সেপ্টেম্বরে এর নির্মাণকাজ শুরু হয়। প্রায় তিন বছরের নির্মাণকাজ শেষে ২০১৯ সালের মার্চে তুরস্কের প্রধানমন্ত্রী রিসেপ তাইয়েপ এরদোয়ান মসজিদটির উদ্বোধন করেন।