advertisement
আপনি দেখছেন

ভারতে প্রথমবারের মতো নারীরা টেক্কা দিয়ে গেল পুরুষদের। দেশটির জাতীয় পরিবার ও স্বাস্থ্য সমীক্ষার সবশেষ পরিসংখ্যান অনুযায়ী, বর্তমানে প্রতি ১ হাজার জন পুরুষের বিপরীতে আছেন ১ হাজার ২০০ জন নারী। ওই সমীক্ষায় দাবি করা হয়, ভারতে আর জনবিস্ফোরণের আশঙ্কা নেই। বুধবার প্রকাশিত জাতীয় পরিবার ও স্বাস্থ্য সমীক্ষার পঞ্চম পর্যায়ে এসব তথ্য জানা গেছে।

indian womenভারতে নারীর সংখ্যা এখন পুরুষের চেয়ে বেশি

পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ১৯৯০ সালে ভারতে এক হাজার পুরুষের বিপরীতে নারী ছিল ৯২৭ জন। এর ১৫ বছর পরে এসে ২০০৫-০৬ সালের সমীক্ষায় দেখা যায়, পুরুষ-নারীর সংখ্যা একেবারে সমান। অর্থাৎ প্রতি এক হাজার পুরুষের বিপরীতে নারীর সংখ্যা ছিল ঠিক এক হাজার জন। ২০১৫-১৬ সালের সমীক্ষায় নারীদের সংখ্যা আবারো কমে গিয়েছিল। তখন পুরুষ ও নারীর অনুপাত ছিল ১০০০:৯৯১। সেই পরিসংখ্যান এবার পাল্টে গেছে। পুরুষের তুলনায় নারীদের অনুপাত বেড়ে হয়েছে ১০০০:১২০০।

২০১৯ সাল থেকে ২০২১ সালের মধ্যে দেশের ৭০৭টি জেলার ছয় লাখ ৫০ হাজার ব্যক্তির ওপর চালানো হয়েছে এই সমীক্ষা। অরুণাচল প্রদেশ, চণ্ডীগড়, ছত্তিশগড়, হরিয়ানা, ঝাড়খণ্ড, মধ্যপ্রদেশ, দিল্লি, ওড়িশা, পদুচেরি, পাঞ্জাব, রাজস্থান, তামিলনাড়ু, উত্তরাখণ্ড ও উত্তরপ্রদেশে সমীক্ষা চালানো হয়। ফলে জাতীয় পর্যায়েও এ তথ্য প্রয়োজ্য হবে কি না, তা আদমশুমারির পরেই স্পষ্ট হবে।

women in indiaবিভিন্ন ক্ষেত্রে নারীদের অবদানও বেড়েছে

উল্লেখ্য, গত পাঁচ বছরে জন্মের সময় পুরুষ ও নারীর অনুপাত ১০০০:৯২৯। অর্থাৎ জন্মের ক্ষেত্রে ভারতে এখনো ছেলেদের প্রাধান্য রয়েছে। তবে সেই পরিস্থিতিতেও পুরুষদের থেকে নারীদের সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় আশাবাদী প্রশাসনিক মহল।