advertisement
আপনি পড়ছেন

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান মঙ্গলবার বলেছেন, আগামী তিন মাস সরকারের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, তাই কোনো ফেডারেল মন্ত্রীকে বিদেশ সফরে যেতে দেওয়া হবে না। ফেডারেল মন্ত্রিসভার এক অধিবেশনে ভাষণ দেওয়ার সময় তিনি এ কথা বলেন। ইমরান বলেন, সরকারের অনুমতি ছাড়া মন্ত্রীদের বিদেশ সফর মানা। জিও টিভি।

imran khan aug 2019পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ইমরান গ্লাসগোতে (ইউকে) জলবায়ুু সম্মেলনে কিছু দলের তুলে ধরা বিবৃতির কঠোর সমালোনা করেন। তিনি বলেন, এই ধরনের বিবৃতি পুরোপুরি দুর্ভাগ্যজনক। সম্মেলনের সময় পিটিআই নেতৃত্বাধীন সরকার দেশে জলবায়ু পরিবর্তনের প্রভাব মোকাবেলায় যে উদ্যোগ নিয়েছে তার কারণে পাকিস্তান বিশেষ সম্মান পেয়েছে।

চমৎকারভাবে সম্মেলনে দেশের প্রতিনিধিত্ব করার জন্য ইমরা খান তার সরকারের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক বিশেষ সহকারী মালিক আমিন আসলামের প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, আসলামের সঙ্গে ঝগড়ার পর পাকিস্তানের জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জারতাজ গুল ওয়াজির সম্মেলন ছেড়ে চলে যান। বিষয়টি কয়েক দিন আগে পিটিআই এমএনএ রিয়াজ ফাতিয়ানাও স্বীকার করেন।

imran khan 21পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান

ফাতিয়ান বলেছিলেন, আসলাম এবং জারতাজ গুল ওয়াজির গ্লাসগোতে জাতিসংঘের সম্মেলনের সময় উত্তপ্ত তর্ক করেছিলেন। এরপর ওয়াজির সম্মেলন ত্যাগ করে পাকিস্তানে ফিরে আসেন। অধিবেশনে ফাতিয়ানা আরও অভিযোগ করেন, জলবায়ু পরিবর্তন মন্ত্রণালয়ের অযোগ্যতার কারণে সম্মেলনের কাঙ্খিত ফলাফল পাওয়া যাচ্ছে না।

তবে ফাতিয়ানার অভিযোগ অস্বীকার করে আসলাম বলেন, জারতাজ সংসদের যৌথ অধিবেশনে যোগ দেওয়ার জন্য জন্য মাঝপথে সম্মেলন ত্যাগ করেছিলেন। তার অভিযোগ, রিয়াজ ফাতিয়ানা পাবলিক অ্যাকাউন্টস কমিটির সামনে মিথ্যা বলেছেন। সম্মেলনে সরকারের একটি টাকাও ব্যয় করা হয়নি। এটি সম্পূর্ণরূপে বিদেশি দাতাদের দ্বারা আয়োজিত হয়।

আসলাম বলেন, তিনি জানেন না কেন ফাতিয়ানা এই অভিযোগ তুলেছিলেন। পিটিআই আইন প্রণেতা একটি এনজিওর স্পনসরশিপের মাধ্যমে সম্মেলনে এসেছিলেন এবং অফিসিয়াল প্রোটোকল দাবি করেছিলেন। ফাতিয়ানার অভিযোগ ছিল, সরকার সরকারি প্রতিনিধি দলের জন্য সংরক্ষিত গাড়ি দিতে অস্বীকার করেছিল। ফাতিয়ানার মিথ্যাচারের তদন্ত দাবি করেন আসলাম।