advertisement
আপনি পড়ছেন

মধ্যপ্রাচ্য শান্তি প্রক্রিয়ার জন্য জাতিসংঘের বিশেষ সমন্বয়কারী টর ওয়েনেসল্যান্ড বলেছেন, ইসরায়েলি দখলদারিত্ব শান্তি আলোচনাকে এগিয়ে নেওয়ার প্রক্রিয়া ক্ষতিগ্রস্ত করছে। মাসিক প্রেস ব্রিফিংয়ের সময় আজ বুধবার (১ ডিসেম্বর) তিনি এমন মন্তব্য করেন। তিনি বলেন, পশ্চিম তীরে একটি গুরুতর আর্থিক ও অর্থনৈতিক সংকট চলছে। ফিলিস্তিনি প্রতিষ্ঠানগুলোর স্থিতিশীলতার জন্য তা হুমকিস্বরূপ।

tor wenneslandটর ওয়েনেসল্যান্ড

তিনি বলেন, ইসরায়েলের চলমান সহিংসতা এবং একতরফা পদক্ষেপ শান্তি আলোচনায় পৌঁছানোর ক্ষেত্রে বাধা। ইসরায়েলি বসতি সম্প্রসারণ এবং ফিলিস্তিনি বাড়িঘর ধ্বংস উত্তেজনা ও হতাশা বাড়াচ্ছে। একইসঙ্গে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের অবস্থানকে হুমকির মুখে ফেলছে। অর্থপূর্ণ আলোচনায় ফিরে আসার সম্ভাবনাকে আরও কমিয়ে দিচ্ছে।

মধ্যপ্রাচ্যে জাতিসংঘের দূত বলছেন, বসতি সম্প্রসারণ এবং বার্ষিক জলপাই কাটার মৌসুম নিয়ে অব্যাহত উত্তেজনার মধ্যে বসতি স্থাপন নিয়ে সহিংসতা উদ্বেগজনক। এটি আরও সহিংসতা ছড়াবে। ৪ অক্টোবর থেকে ফসল কাটা শুরু হওয়ার পর থেকে প্রায় তিন হাজার জলপাই গাছ ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বা তাদের ফসল চুরি হয়েছে।

israel settlement in west bankপশ্চিম তীরে ইসরায়েলের অবৈধ বসতি স্থাপন

খবরে বলা হচ্ছে, ফিলিস্তিনি কৃষক, স্বেচ্ছাসেবক এবং মানবিক কর্মীদের ওপর ইসরায়েলি হামলা বহুগুণে বেড়েছে। কিছু হামলা ইসরায়েলি নিরাপত্তা বাহিনীর উপস্থিতিতেই ঘটেছে বলে জানা গেছে। ওয়েনেসল্যান্ডের মতে, ইসরায়েল অধিকৃত পশ্চিম তীরে বসতি স্থাপনকারীরা ফিলিস্তিনিদের বিরুদ্ধে ৫৪ বার হামলা চালিয়েছে। যার ফলে পাঁচটি শিশুসহ ২৬ জন আহত হয়েছেন এবং সম্পত্তির ক্ষতি হয়েছে।

ওয়েনেসল্যান্ড ইসরায়েলি সেটেলমেন্ট ইউনিটের (বসতি) সংখ্যা বর্ণনা করেছেন যা অক্টোবরে ঘোষণা করা হয়েছিল। ১ নভেম্বর পর্যন্ত দখলদার ইসরায়েল ১০ হাজার ৫৫০ সেটেলমেন্ট ইউনিট স্থাপন করেছে। আন্তর্জাতিক আইনের অধীনে সমস্ত বসতি অবৈধ এবং শান্তির জন্য বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে।