advertisement
আপনি পড়ছেন

নিয়ন্ত্রণ রেখা (এলওসি) জুড়ে লঞ্চপ্যাড এবং প্রশিক্ষণ শিবির উপস্থিতির বিষয়ে ভারতীয় সেনাপ্রধানের করা মন্তব্য প্রত্যাখ্যান করেছে পাকিস্তান। একে ভিত্তিহীন আখ্যা দিয়ে বলা হয়েছে, এগুলো ভারতে বিজেপি-আরএসএস দ্বারা পরিচালিত বিদ্বেষপূর্ণ পাকিস্তানবিরোধী প্রচারের একটি অংশ মাত্র।

indian army cheif 1ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে

ভারতীয় প্রকাশনা মর্নিং এক্সপ্রেস অনুসারে, ভারতীয় সেনাপ্রধান জেনারেল মনোজ মুকুন্দ নারাভানে দাবি করেছেন, ৩৫০ থেকে ৪০০ জন সন্ত্রাসী সীমান্ত লঞ্চপ্যাড এবং এলওসির কাছে প্রশিক্ষণ শিবিরে জড়ো হচ্ছে। তারা পাকিস্তানের পক্ষ থেকে প্রক্সি যুদ্ধে লড়ছে।

তার এমন মন্তব্যের জবাবে গতকাল বৃহস্পতিবার পাকিস্তানের পররাষ্ট্র দপ্তর এক বিবৃতিতে বলেছে, ভারতীয় সেনাপ্রধান তথাকথিত লঞ্চপ্যাড ও নিয়ন্ত্রণ রেখাজুড়ে প্রশিক্ষণ ক্যাম্পের যে ইঙ্গিত দিয়েছেন, তা ভ্রান্ত ও ভিত্তিহীন। মূলত এ অভিযোগে নতুন কিছুই নেই।

indian army in kashmir 1কাশ্মিরে ভারতীয় সেনাবাহিনীর টহল

তারা আরো দাবি করে, ভারতীয় সেনাপ্রধান এই মন্তব্যের মাধ্যমে ভারতের রাষ্ট্র-সন্ত্রাস এবং গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘন থেকে বিশ্বব্যাপী মনোযোগ সরানোর জন্য মরিয়া প্রচেষ্টা চালাচ্ছেন। একই সাথে ভারত অধিকৃত জম্মু ও কাশ্মিরে অবিচ্ছিন্নভাবে যে মানবাধিকার লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটছে, তা থেকেও নজর অন্যত্র সরানোর চেষ্টা চলছে।

বিবৃতিতে পাকিস্তানের পক্ষ থেকে ভারতকে অবিলম্বে অধিকৃত কাশ্মিরে পরিচালিত অত্যাচার-নিপীড়ন বন্ধ করার জন্য এবং জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের রেজুলেশনের অধীনে তাদের প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী কাশ্মিরিদের আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকার প্রয়োগ করার আহ্বান জানানো হয়।

উপসংহারে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, জম্মু ও কাশ্মিরসহ সমস্ত অমীমাংসিত বিরোধের শান্তিপূর্ণ সমাধানের জন্য ভারতের সাথে অর্থপূর্ণ সংলাপ চালিয়ে যেতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ পাকিস্তান। তবে সে আলোচনার জন্য একটি অনুকূল পরিবেশ তৈরি করার দায়িত্ব ভারতের।