advertisement
আপনি পড়ছেন

যে ইউরোপীয় ইউনিয়ন বা ইইউ এতদিন তালেবান সরকারের প্রচণ্ড বিরোধিতা করে আসছিল, এবার তারাই আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে স্থায়ী দূতাবাস প্রতিষ্ঠা করতে যাচ্ছে। কূটনীতিক কার্যক্রম চালানোর লক্ষ্যে কাবুলে স্থায়ী দূতাবাস খোলার এ ঘোষণা দিয়েছে ইউরোপের দেশগুলোর এ সংগঠনটি।

eu spokesman taliban govt spokesmanকাবুলে স্থায়ী দূতাবাস খুলছে ইইউ

আফগানিস্তানের তালেবান নেতৃত্বাধীন অন্তর্বর্তীকালীন সরকারের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে শুক্রবার, ২১ জানুয়ারি, এ তথ্য জানিয়েছে দেশটির সংবাদ মাধ্যম টোলো নিউজ। আফগান পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র আব্দুল কাহার বলখি এক টুইট বার্তায়

তিনি বলেন, ইউরোপীয় ইউনিয়ন কাবুলে স্থায়ী দূতাবাস খোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। কয়েক দফা তালেবান প্রশাসনের সঙ্গে বৈঠক শেষে তারা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে বলেও উল্লেখ করেছেন তালেবার সরকারের এই মুখপাত্র। 

afghan taliban flag kabulকাবুলের একটি সুউচ্চ ভবনে তালেবানের পতাকা

বার্তা সংস্থা এএফপির এক প্রতিবেদন থেকে জানা যায়, আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা দেওয়ার সুবিধার্থে দেশটির রাজধানী কাবুলে দূতাবাস খোলার ঘোষণা দিয়েছে ইইউ। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে ইইউর পক্ষ থেকে এ বিষয়ক এক ঘোষণা দেওয়া হয়। তবে এটাকে কোনোভাবেই তালেবানের স্বীকৃতি হিসেবে দেখা ঠিক হবে না বলে জানিয়েছে সংস্থাটি।

ইইউর পররাষ্ট্র বিষয়ক মুখপাত্র পিটার স্ট্যানো বলেন, কাবুলে আমাদের ন্যূনতম উপস্থিতিকে কোনোভাবেই তালেবান সরকারের স্বীকৃতি হিসেবে দেখা উচিত নয়। বিষয়টি আমরা দেশটির বর্তমান কর্তৃপক্ষকেও, তালেবান, স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিয়েছি।

আব্দুল কাহার বলখি জানিয়েছেন, আফগানিস্তানে ২২০ মিলিয়ন ইউরোর মানবিক সাহায্য এবং অতিরিক্ত আরো ২৬৮ মিলিয়ন ইউরো অর্থ সহায়তা করবে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। এসব অর্থের একটা বড় অংশ শিক্ষকদের বেতন পরিশোধে ব্যয় করা হবে বলেও জানান তিনি।