advertisement
আপনি পড়ছেন

আগামী শনিবার থেকে ফিনল্যান্ডে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাশিয়া। গ্যাসের মূল্য রুবলে পরিশোধ করতে অপারগতা প্রকাশ করায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাশিয়া। দেশটির রাষ্ট্রীয় জ্বালানি প্রতিষ্ঠান গ্যাজপ্রম ইতোমধ্যে ফিনিশ কোম্পানি গাসুমকে বিষয়টি অবহিত করেছে। তবে ধরণা করা হচ্ছে সম্প্রতি দেশটির ন্যাটোতে যোগদানের ঘোষণা বিষয়টিকে ত্বরান্বিত করেছে। ফিনল্যান্ড বলছে রাশিয়ার ইউক্রেনে হামলার বিষয়টি তাদের এ সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য করেছে।

russia gas pipelineরাশিয়ার টার্গেট এবার ফিনল্যান্ড, বন্ধ করে দিচ্ছে গ্যাস

ফিনল্যান্ড ন্যাটো সদস্যপদ পাওয়ার জন্য আবেদনও করেছে। শনিবার ভোর ৪টার দিকে রাশিয়া গ্যাস সরবরাহ কমিয়ে দেবে। পশ্চিমা নিষেধাজ্ঞার পাল্টা পদক্ষেপ হিসেবে রাশিয়া গ্যাসের দাম রুবলে পরিশোধ করতে বলছে।

এর আগে বুলগেরিয়া ও পোল্যান্ডে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দিয়েছে রাশিয়া। রাশিয়ান গ্যাস বন্ধ করে দেওয়ার প্রতিক্রিয়ায় গাসুমের প্রধান নির্বাহী মিকা উইলজানেন বলছেন, এটি অত্যন্ত দুঃখজনক। চুক্তি থাকা সত্ত্বেও গ্যাস রপ্তানি বন্ধ করে দিচ্ছে মস্কো।

তিনি আরও বলেন, আমরা এই পরিস্থিতির জন্য সতর্কতার সাথে প্রস্তুতি নিচ্ছি। গ্যাস ট্রান্সমিশন নেটওয়ার্কে কোনো বিঘ্ন ঘটবে না। আগামী মাসেই আমাদের সমস্ত গ্রাহককে গ্যাস সরবরাহ করতে সক্ষম হব। রাশিয়ান গ্যাসের পরিবর্তে মজুদ তরল প্রাকৃতিক গ্যাস ব্যবহার করা হবে।

চলতি বছরের ২৪ ফেব্রুয়ারি রাশিয়া ইউক্রেনে হামলার করলে পশ্চিমা বিশ্ব রাশিয়ার ওপর কয়েক হাজার নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে। জবাবে রাশিয়াও পাল্টা নিষেধাজ্ঞা দেয় এবং জ্বালানি সরবরাহের বিল রুবলে পরিশোধ করতে বলে। উল্লেখ্য, রাশিয়ার গ্যাজপ্রম কোম্পানির ওপর জার্মানিসহ ইউরোপের অনেক দেশ নির্ভরশীল।