advertisement
আপনি পড়ছেন

পশ্চিম ও উত্তর ইউক্রেনের সামরিক স্থাপনায় কয়েক ডজন রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালিয়েছে। স্থানীয় কর্মকর্তারা বলেছেন, দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ইউরোপের সবচেয়ে বড় যুদ্ধ পঞ্চম মাসে প্রবেশ করছে। টিআরটি ওয়ার্ল্ড।

dozens of missiles target ukraine military facilities officialsইউক্রেনে ডজনকে ডজন রাশিয়ান ক্ষেপণাস্ত্রের আঘাত!

পশ্চিম ইউক্রেনের লভিভ অঞ্চলের গভর্নর ম্যাক্সিম কোজিটস্কি অনলাইনে পোস্ট করা এক ভিডিওতে বলেছেন, ইয়াভোরিভ ঘাঁটিতে কৃষ্ণ সাগর থেকে ছয়টি ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করা হয়েছিল। এর মধ্যে চারটি ঘাঁটিতে আঘাত হানে এবং দুটি ক্ষেপণাস্ত্র আঘাত করার আগেই ধ্বংস করে দেয় ইউক্রেন বাহিনী।

দেশের উত্তরে ঝিতোমির অঞ্চলের গভর্নর ভিটালি বুনেচকো বলেছেন, শহরের খুব কাছে একটি সামরিক অবকাঠামো লক্ষ্য করে প্রায় ৩০টি ক্ষেপণাস্ত্র ছোড়া হয়। এর মধ্যে ১০টি ক্ষেপণাস্ত্র ধ্বংস করা হয়েছে। চেরনিহিভ গভর্নর ব্যাচেস্লাভ চাউস অঞ্চলের উত্তরে ছোট শহর দেশনাও রুশ রকেট হামলার আওতায় এসেছে।

বেলারুশ থেকে ব্যাপক বোমাবর্ষণ: বেলারুশের ভূখণ্ড থেকে ইউক্রেনের উত্তর সীমান্ত অঞ্চল চেরনিহিভে ব্যাপক বোমাবর্ষণ করা হচ্ছে। ইউক্রেনের সেনাবাহিনী এ তথ্য জানিয়েছে। ইউক্রেনের উত্তরাঞ্চলীয় সামরিক কমান্ড ফেসবুকে এক বিবৃতিতে লিখেছেন, স্থানীয় সময় ভোর ৫টায় চেরনিহিভ অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র দ্বারা ব্যাপক বোমা হামলা হয়েছে। অন্তত বিশটি রকেট বেলারুশের আকাশ থেকে নিক্ষেপ করা হয়েছে দেশনা গ্রাম লক্ষ্য করে। তবে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সেন্ট পিটার্সবার্গে রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন বেলারুশের প্রেসিডেন্ট আলেকজান্ডার লুকাশেঙ্কোর সঙ্গে দেখা করার সময় এই হামলা হয়। দুই প্রেসিডেন্টের এই সাক্ষাৎ যুদ্ধে নতুন মেরুকরণ ঘটতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বেলারুশকে যুদ্ধে টেনে আনতে চাচ্ছে রাশিয়া: ইউক্রেনের গোয়েন্দা পরিষেবা জানিয়েছে, রাশিয়া বেলারুশকে সংঘাতে টেনে আনতে চাইছে। বেলারুশিয়ান অঞ্চল থেকে উত্তর সীমান্ত অঞ্চলে ক্ষেপণাস্ত্র নিক্ষেপ করার পর ইউক্রেনের সেনা গোয়েন্দা পরিষেবা এ তথ্য জানিয়েছে।

প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এক টেলিগ্রাম বার্তায় জানিয়েছে, আজকের হামলাটি প্রমাণ করে ইউক্রেনের যুদ্ধে বেলারুশকে পাশে পেতে চাচ্ছে ক্রেমলিন।