advertisement
আপনি পড়ছেন

দীর্ঘদিন ধরে নিষ্ক্রিয় থাকার পর হঠাৎ করেই বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে আবারো কলেরা বাড়ার খবর পাওয়া যাচ্ছে। এরই জেরে নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুতে ফুচকা নিষিদ্ধ করা হয়েছে। খবর এনডিটিভি।

fuska 1ফুচকা

জানা গেছে, নেপালে অন্তত ১২ জনের শরীরে কলেরার জীবাণু পাওয়া গেছে। এর মধ্যেই পরীক্ষা-নিরীক্ষায় ফুসকার পানির মধ্যে কলেরার ব্যাকটেরিয়ার সন্ধান পান সেখানকার স্বাস্থ্যকর্মীরা। এরপর থেকেই প্রশাসন সতর্ক অবস্থান গ্রহণ করে। এক পর্যায়ে ললিতপুর মেট্রোপলিটন সিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়, ফুচকায় ব্যবহৃত পানিতে কলেরা ব্যাকটেরিয়ার সন্ধান পাওয়ায় মুখরোচক এ খাদ্যটি নিষিদ্ধের পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে।

কাঠমান্ডুর প্রশাসন জানায়, তারা মনে করছে, বর্ষাকালে যেহেতু দ্রুত কলেরা জীবাণু ছড়ানোর আশঙ্কা রয়েছে এবং ফুচকায় ব্যবহৃত পানির মধ্যে ব্যাকটেরিয়া পাওয়া গেছে, তাই ফুচকা বিক্রি বন্ধ না করলে সংক্রমণ আরও দ্রুত ছড়িয়ে পড়তে পারে। সে কারণেই শহরাঞ্চলের পাশাপাশি শহরতলিসহ অন্য কোথাও যেন আপাতত ফুচকা বিক্রি করা না হয়, তার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিশ্চিত করতে নজরদারিও চালানো হবে বলে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

a view ol kathmanduকাঠমান্ডুর একটি এলাকা

নেপালের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অধীন এপিডেমিওলজি ও রোগ নিয়ন্ত্রণ বিভাগের প্রধান চমনলাল দাস জানান, কাঠমান্ডুতেই ৫ জনের শরীরে কলেরার জীবাণু ধরা পড়েছে। আগেও রাজধানীতে পাঁচজনের শরীরে কলেরার সংক্রমণ ধরা পড়েছিল। তাদের মধ্যে দুজন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে গেছেন।

স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, কারও শরীরে কলেরার জীবাণু ধরা পড়লেই সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে যেতে হবে।