advertisement
আপনি পড়ছেন

ফিনল্যান্ড ও সুইডেনের সাথে চুক্তি স্বাক্ষরের ঘটনাকে কূটনৈতিক বিজয় বলে অভিহিত করেছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান। গতকাল বৃহস্পতিবার স্পেনের মাদ্রিদে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। খবর আনাদোলু।

erdogan 13তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়িপ এরদোয়ান

এরদোয়ান বলেন, চুক্তিতে সম্মত হওয়া পয়েন্টগুলোর বাস্তবায়ন আঙ্কারা ঘনিষ্ঠভাবে পর্যবেক্ষণ করবে এবং সে অনুযায়ী পদক্ষেপ নেবে। তিনি চুক্তিটিকে সংবেদনশীলতার এক ধরনের বোঝাপড়া হিসেবে দেখেন। এটি একটি প্রক্রিয়ার কেবল শুরু বলেও মন্তব্য করেন এরদোয়ান।

গত মঙ্গলবার তিন দেশের নেতাদের মধ্যে বৈঠকের পর আলোচিত চুক্তিটি স্বাক্ষরিত হয়। এর মাধ্যমে ন্যাটো জোটের জন্য আনুষ্ঠানিকভাবে ফিনল্যান্ড ও সুইডেনকে আমন্ত্রণ জানানোর পথ খুলে গেছে।

signing of agreement 1 তিন দেশের মধ্যে চুক্তি সই

তুরস্কের সাথে চুক্তিতে দুই দেশ আঙ্কারার সন্ত্রাসবাদের উদ্বেগ মোকাবেলা করা এবং দেশটির ওপর থেকে অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। চুক্তিতে আরো বলা হয়েছে, ফিনল্যান্ড ও সুইডেন তথ্য বিনিময়, প্রত্যর্পণ এবং সাধারণভাবে, সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই সম্পর্কিত বিষয়ে তুরস্কের সাথে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করবে।

চুক্তিতে সুইডেন ৭৩ জন সন্ত্রাসীকে তুরস্কের কাছে হস্তান্তরের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে উল্লেখ করে এরদোয়ান বলেন, ন্যাটোর সন্ত্রাসবিরোধী প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে জোটের জন্য তার সব ধরনের সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে লড়াই করার দৃঢ় সংকল্প দেখানো গুরুত্বপূর্ণ, এটি কেবল কাগজে রয়ে যাওয়া উচিত নয়।

চলমান ইউক্রেন যুদ্ধের ব্যাপারে তুর্কি প্রেসিডেন্ট বলেন, এক্ষেত্রে কিয়েভকে পুরোপুরি সমর্থন করে ন্যাটো, তবে অবশ্যই তাতে শান্তির দৃষ্টিভঙ্গি দেখাতে হবে এবং যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এ লড়াই বন্ধ করার চেষ্টা করতে হবে।

আঙ্কারার কাছে এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের সম্ভাব্য বিক্রির বিষয়ে এরদোয়ান বলেন, একটি তুর্কি প্রতিনিধিদল এ বিষয়ে কংগ্রেসে রিপাবলিকানদের সমর্থন সংগ্রহ করতে শিগগিরই যুক্তরাষ্ট্রে যাবে।