advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 12 মিনিট আগে

বিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকনকে আজ গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। সহকারী পুলিশ কমিশনার (রমনা জোন) এসএম শামীম জানান, গাড়ি ভাঙচুর ও পুলিশের ওপর হামলার অভিযোগে মঙ্গলবার রাতে দায়ের করা মামলায় তাদেরকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়।

hafiz khokonবিএনপির ভাইস-চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ ও যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন

বিএনপি চেয়ারপার্সনের মিডিয়া উইং সদস্য শামসুদ্দিন দিদার জানান, হাইকোর্ট থেকে বাড়ি ফেরার সময় বেলা সাড়ে ১২টার দিকে হাফিজ উদ্দিনকে গ্রেপ্তার করা হয়। জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানিতে হাজির হতে বিএনপি নেতা হাফিজ হাইকোর্টে গিয়েছিলেন।

দিদার আরও জানান, গ্রেপ্তারের পরে হাফিজকে শাহবাগ থানায় নেয়া হয়েছে।

এর আগে সকালে একই জায়গা থেকে খায়রুল কবির খোকনকে গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

তার স্ত্রী ও বিএনপি নেত্রী শিরিন সুলতানা বলেন, খালেদা জিয়ার জামিন আবেদনের শুনানিতে অংশ নিতে তিনি ও তার স্বামী আদালতে প্রবেশের সময় পুলিশ খোকনকে গ্রেপ্তার করে।

‘আমি পুলিশকে প্রশ্ন করেছি তারা কেন খোকনকে গ্রেপ্তার করছে? তারা আমার প্রশ্নের জবাব দেয়নি,’ বলেন তিনি।

এর মধ্য দিয়ে মঙ্গলবার হাইকোর্টের সামনে বিএনপির একদল নেতাকর্মীর সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা মামলায় বিএনপির তিন নেতাকে গ্রেপ্তার করা হলো।

একই মামলায় বুধবার ভোরে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে জাতীয়তাবাদী মুক্তিযোদ্ধা দলের সভাপতি ইশতিয়াক আজিজ উলফাতকে গ্রেপ্তার করা হয়।

প্রসঙ্গত, কারাবন্দী চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার মুক্তির দাবিতে মঙ্গলবার হাইকোর্টের সামনে বিএনপির একদল নেতাকর্মীদের বিক্ষোভের সময় সংঘর্ষের ঘটনায় পুলিশের দুই সদস্য আহত হন। এসময় বেশ কয়েকটি গাড়িও ভাঙচুর করে বিএনপির কর্মীরা।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার রাতে শাহবাগ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মতিউর রহমান বাদী হয়ে ২০-২৫ জনের নাম উল্লেখ করে এবং ৪৭৫ জনকে অজ্ঞাত আসামি করে মামলাটি করেন। ইউএনবি।

sheikh mujib 2020