advertisement
আপনি দেখছেন

নীলফামারীতে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৩৫ জন চীন ফেরত প্রবাসীর মধ্যে ৩৪ জনকে আজ শুক্রবার ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি একজনকে আগামীকাল শনিবার ছাড়া হবে। তিনি ছাড়া বাকিরা গত ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে নিজ বাড়িতে হোম কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। 

home quarantine image

এ তথ্য নিশ্চিত করে নীলফামারীর সিভিল সার্জন রণজিৎ কুমার বর্মণ বলেন, করোনাভাইরাস ছড়াতে পারে এমন শঙ্কায় জেলার ৩৫ জন চীন ফেরত প্রবাসীকে ১৪ দিনের হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এ নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাদের কারো শরীরে করোনার লক্ষণ দেখা না যাওয়ায় ৩৪ জনকে আজ ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। বাকি একজন গত ১ মার্চ থেকে কোয়ারেন্টাইনে আছেন। তাই তাকে আগামীকাল ছাড়া হবে।

যারা ছাড়া পেয়েছেন তাদের মধ্যে ৮ জন নীলফামারী জেলা সদরের, ৮ জন জোমার উপজেলার, ৬ জন জলঢাকা উপজেলার, ৬ জন ডিমলা উপজেলার, ৪ জন সৈয়দপুর উপজেলার এবং ৩ জন কিশোরগঞ্জ উপজেলার।

হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখার বিষয়ে রণজিৎ কুমার বর্মণ বলেন, ওই ৩৫ জন প্রবাসীকে নিজ বাড়িতে একটি আলাদা কক্ষে রাখা হয়েছিল। স্বাস্থ্যকর্মীরা নিয়মিত তাদের খোঁজ-খবর নিয়েছেন এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেছেন। ওই সময়ের মধ্যে কোয়ারেন্টাইনে থাকা ব্যক্তিদের পরিবারের সদস্যরাও তাদের সংস্পর্শে আসেননি। তাই পরিবারের সদস্যদের কোয়ারেন্টাইনে রাখার প্রয়োজন হয়নি।