advertisement
আপনি দেখছেন

প্লেব্যাক সম্রাট এন্ড্রু কিশোর আর নেই। আজ সোমবার সন্ধ্যায় রাজশাহীতে মারা যান তিনি। বাংলা গানের জনপ্রিয় এ কণ্ঠশিল্পীর ঘনিষ্ঠ ও সংগীতশিল্পী মোমিন বিশ্বাস বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, সবাইকে কাঁদিয়ে কিছুক্ষণ আগে তিনি না ফেরার দেশে চলে গেছেন।

andro kisorচিকিৎসাধীন অবস্থায় এন্ড্রু কিশোর

ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার পর দীর্ঘ ৯ মাস সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপতালে চিকিৎসা নিয়েছেন এন্ড্রু কিশোর। গত ১১ জুন একটি বিশেষ ফ্লাইটে দেশে ফেরেন। তার পর থেকে রাজশাহীতে বোনের বাসায় বসবাস করছিলেন তিনি। তার জন্মও রাজশাহীতেই। গত দুই-তিন দিনে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটেছে।

গত বছরের ৯ সেপ্টেম্বর শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে সিঙ্গাপুর চিকিৎসার জন্য যান এন্ড্রু কিশোর। এ সময় তার সঙ্গে ছিলেন স্ত্রী লিপিকা এন্ড্রু ও ঘনিষ্ঠজন জাহাঙ্গীর সাঈদ। সেখানে পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তার ব্লাড ক্যান্সার ধরা পড়ে। পরে তাকে সিঙ্গাপুর জেনারেল হাসপাতালে ছয় ধাপে ২৪টি ক্যামোথেরাপি দেওয়া হয়।

andro kisor 1এন্ডু কিশোর আর নেই

দীর্ঘ নয় মাস সিঙ্গাপুরে চিকিৎসাধীন থাকার পর গত ১১ জুন দেশে ফেরেন এন্ড্রু কিশোর। দেশের ফেরার পর তিনি জন্মস্থান রাজশাহীতে বোনের বাসায় চলে যান। তার ভগ্নিপতি একজন ক্যান্সার চিকিৎসক। তার তত্ত্বাবধানেই বাসায় চিকিৎসা নিচ্ছিলেন এ গুণী কণ্ঠশিল্পী।

এন্ড্রু কিশোর তার দীর্ঘ সঙ্গীত জীবনে মোট আট বার জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছেন। ১৯৭৭ সালে ‘মেইল ট্রেন’ চলচ্চিত্রে প্লেব্যাক গানের মাধ্যমে সঙ্গীত জগতে আসেন তিনি। এরপর ‘জীবনের গল্প আছে বাকি অল্প’, ‘আমার সারা দেহ খেও গো মাটি’, ‘ডাক দিয়াছেন দয়াল আমারে’, ‘হায়রে মানুষ রঙিন ফানুস’, ‘আমার বুকের মধ্যে খানে’সহ অসংখ্য জনপ্রিয় বাংলা গান শ্রোতাদের উপহার দিয়েছেন এই কণ্ঠশিল্পী।

sheikh mujib 2020