advertisement
আপনি দেখছেন

সম্প্রতি কোনো ধরনের আগাম ঘোষণা ছাড়াই হঠাৎ করে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয় ভারত। এরপর দেশের বাজারে হু হু করে বাড়তে থাকে এ নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যটির দাম। পেঁয়াজের বাজার ঠিক রাখতে ও সাধারণ ক্রেতাদের কথা চিন্তা করে বিভিন্ন ধরনের পদক্ষেপ গ্রহণ করে ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)।

tcb onion posterপ্রথমবারের মতো অনলাইনে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছে টিসিবি

শুরুতে ডিলারদের মাধ্যমে খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করে টিসিবি। পরবর্তীদের ক্রেতাদের দোরগোড়ায় পণ্যটি পৌঁছে দিতে প্রতিষ্ঠিত ই-কমার্স সাইটগুলোর মাধ্যমে প্রথমবারের মতো অনলাইনে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করে সরকারি এ প্রতিষ্ঠানটি। সংকটকালে টিসিবির এমন দ্রুত ও কার্যকর উদ্যোগ সাড়া ফেলেছে ক্রেতাদের মঝেও। তাইতো যেসব ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করেছে তাদের বেশিরভাগেরই দিনের বরাদ্দ শেষ হয়ে যাচ্ছে কয়েক ঘণ্টার মধ্যে।

এমতাবস্থায় নিত্যপ্রয়োজনীয় এ পণ্যটির যোগান ও দিনের বরাদ্দ আরো বাড়ানোর জন্য সরকারের প্রতি দাবি জানিয়েছে ই-কমার্স বিপণন সাইটগুলো।

গত রোববার অনলাইন পেঁয়াজ বিক্রির এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি। ‘ঘরে বসে স্বস্তির পেঁয়াজ’ নামে অনালাইনে পেঁয়াজ বিক্রির জন্য প্রাথমিকভাবে প্রথম সারির কয়েকটি ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মকে বেছে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে- স্বপ্ন, চালডাল, সবজিবাজার, সিন্দাবাদ, যা-চাই ডটকম।

india wants to sell onionsপেঁয়াজ- ফাইল ছবি

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, প্রথম ধাপে গুটি কয়েক ই-কমার্স প্ল্যাটফর্মকে যুক্ত করা হলেও ধীরে ধীরে মোট ৩০টি সাইটকে এর সঙ্গে যুক্ত করা হবে। প্রতিটি ই-কমার্স সাইট টিসিবি থেকে তিন দিন পর পর ১ হাজার ৫০০ কেজি করে পেঁয়াজ নিতে পারবে। আর তারা সেগুলো গ্রাহকদের কাছে ৩৬ টাকা কেজি দরে বিক্রি করবে। তবে একজন গ্রাহক একবারে সর্বোচ্চ তিন কেজি পর্যন্ত পেঁয়াজ এসব প্ল্যাটফর্ম থেকে কিনতে পারবেন।

রোববার উদ্বোধনের পর সোমবার প্রথম দিনে অনলাইনে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করে শুধু চালডাল ডটকম ও স্বপ্ন অনলাইন। দুপুরে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করার পর বিকালের আগেই ফুরিয়ে যায় তাদের দিনের বরাদ্দ।

মঙ্গলবার টিসিবির পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করে ই-কমার্স প্ল্যাটফর্ম সিন্দাবাদ ডটকম। আজ বৃহস্পতিবার সাইটটির প্রতিষ্ঠাতা বলেন, মঙ্গলবার পেঁয়াজ বিক্রি শুরুর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তাদের স্টক শেষ হয়ে যায়। তারা প্রথম ধাপে টিসিবি থেকে দেড় হাজার কেজি পেঁয়াজ এনেছিলেন। নিয়ম অনুসারে ৩ দিন পর আবার তারা দেড় হাজার কেজি পেঁয়াজ পাবে। কিন্তু টিসিবি শুক্র ও শনিবার বন্ধ থাকায় তারা রোববার পেঁয়াজ হাতে পাবেন। এরপর আবার পণ্যটি বিক্রি শুরু করবেন।

আরেক ই-কমার্স সাইট যা-চাই ডটকমের প্রতিষ্ঠাতা আব্দুল আজিজ বলেন, মানুষের যে পরিমাণ চাহিদা রয়েছে এতে প্রতিদিনের জন্য ২ হাজার কেজি বরাদ্দ দিলেও কুলানো যাবে না। ক্রেতাদের চাহিদা মাথায় রেখে টিসিবি তাদের বরাদ্ধ আরো বাড়াবে বলে আশা করছেন তিনি।

এ বিষয়ে টিসিবির চেয়ারম্যান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মো. আরিফুল হাসান বলেন, ডিলারদের মাধ্যমে খোলা বাজারে পেঁয়াজ বিক্রি ছাড়াও তারা অনলাইনে পণ্যটি ভোক্তার কাছে পৌঁছে দেওয়া উদ্যোগ নিয়েছেন। ক্রেতারাও এতে ব্যাপক সাড়া দিয়েছে। তাই ক্রেতাদের চাহিদার কথা চিন্তা করে প্রতিদিনের বরাদ্দ আরো বাড়ানো যায় কিনা সে বিষয়ে তারা চিন্তা-ভাবনা করছেন।

sheikh mujib 2020