advertisement
আপনি দেখছেন

সম্প্রতি কলকাতায় এক পূজামণ্ডপে অতিথি হিসেবে গিয়েছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক ও বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। সেটি নিয়ে দেশব্যাপী ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার সৃষ্টি হয়। শেষ পর্যন্ত দেশবাসীর কাছে ক্ষমা চান দেশের ক্রিকেটের পোস্টার বয়। তবে এ বিষয়ে সাকিবের প্রতি সমর্থন জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর।

vp noor 2020সাবেক ভিপি নুরুল হক নূর

ডয়চে ভেলেকে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল- নূরের আন্দোলন ও রাজনৈতিক সক্রিয়তা ইস্যু নির্ভর কি না? কারণ সাকিব আল হাসানের পূজা উদ্বোধন করতে যাওয়া ও এক ব্যক্তির তাকে মৃত্যুর হুমকি দেয়ার ঘটনায় তিনি নীরব ছিলেন।

জবাবে ডাকসুর সাবেক ভিপি বলেন, সাকিব আল হাসানকে হুমকি দেয়ার ঘটনার তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি। আজ আমি উদ্বিগ্ন। সমাজ হিসেবে আমরা কোন জায়গায় গিয়ে পৌঁছেছি। সাকিব সকল ধর্মের মানুষের কাছেই জনপ্রিয়। প্রধানমন্ত্রী বা বিরোধী দলীয় নেতারাও পূজায় ঘুরে মণ্ডপ উদ্বোধন করেন। এক্ষেত্রে সাকিবও তাই করেছেন। কিন্তু এ ঘটনায় কাউকে হুমকি দেয়া উগ্রতার প্রকাশ।

barister sumonব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন

আমন্ত্রণ পেলে নিজে পূজায় অংশগ্রহণ করবেন কি না, এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমি পূজায় যাবো না কেনো? তাছাড়া সেখানে আমি আগেও গিয়েছি। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের সরস্বতী পূজায় গিয়েছি। অন্যদেরও মণ্ডপ ঘুরিয়ে দেখিয়েছি।

অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে আরো ছিলেন যুবলীগের আইন বিষয়ক সম্পাদক ব্যারিস্টার সৈয়দ সায়েদুল হক সুমন। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, রাজনীতিতে ধর্ম, দক্ষিণ এশিয়ায় সব সময় ব্যবহৃত হয়ে আসছে। এটা অস্বীকার করার কোনো উপায় নেই। রাজনীতিতে ধর্মের ব্যবহার সবচেয়ে সহজ এবং এটা করতে পারলে উন্নয়ন লাগেনা। সমাজসেবা বেশি না করলেও দ্রুতই নেতা হওয়া যায়। তবে আওয়ামী লীগ থাকলে ধর্মকে ব্যবহার করার কোনো প্রয়োজন নেই।

sheikh mujib 2020