advertisement
আপনি দেখছেন

ইন্দো-প্যাসিফিক স্ট্র্যা টেজিক বা আইপিএস জোটে বাংলাদেশের অংশগ্রহণ চায় জাপান। এই জোটে যুক্ত হলে বাংলাদেশ লাভবান হবে বলেও মনে করে দেশটি। আজ বৃহস্পতিবার, ১৪ অক্টোবর, রাজধানীতে এক অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে এসব কথা বলেন ঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি।

japan ambassador dhaka ito naokiঢাকায় নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি

জাতীয় প্রেসক্লাবে ডিপ্লোম্যাটিক করেসপন্ডেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ বা ডিকাব আয়োজিত অনুষ্ঠানে জাপানের রাষ্ট্রদূত বলেন, জাপান আইপিএস জোটে বাংলাদেশের ব্যবহারিক অংশগ্রহণ দেখতে চায়। এর মাধ্যমে লাভবান হবে বাংলাদেশ। সবার জন্যই উম্মুক্ত আইপিএস জোট। আগ্রহী যেকোনো দেশ এতে যুক্ত হতে পারে।

ইতো নাওকি বলেন, এ জোট শুধু কোনো নিরাপত্তার বিষয় নয়, এর সঙ্গে অর্থনৈতিক অগ্রগতিও জড়িত। বাস্তবতা বিবেচনা করেই এই জোটের সঙ্গে যুক্ত হওয়া দরকার। ডিকাব প্রেসিডেন্ট পান্থ রহমান এবং সাধারণ সম্পাদক একেএম মঈনুদ্দিনও অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন।

bangladesh japan flagবাংলাদেশ ও জাপানের পতাকা

বাংলাদেশে নিযুক্ত জাপানের রাষ্ট্রদূত আরও বলেন, কোভ্যাক্সের মাধ্যমে আগামী নভেম্বরে বাংলাদেশকে আরও কোভিড-১৯ এর টিকা দেবে জাপান। এ ছাড়া বছরের শেষে অথবা আগামী বছরের শুরুতে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রসহ, আইসিইউ, বাংলাদেশের হাসপাতালের জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি পাঠানো হবে। একই সঙ্গে উপহার হিসেবে বাংলাদেশ কোস্টগার্ডকে টহল জাহাজও পাঠাবে জাপান।