আপনি পড়ছেন

গাজা উপত্যকায় গত কয়েকদিন ধরে চলা সংঘাতে বিরতি টানতে সম্মত হয়েছে ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন। মিশরের মধ্যস্থতায় গতকাল রোববার যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়েছে তেল আবিব। এরপর স্থানীয় সময় সাড়ে আটটায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর করা হয়। তবে এরই মধ্যে আবারও গাজায় বিমান হামলা চালিয়েছে ইসরায়েল। খবর রয়টার্স ও এএফপি।

gaza attack 2গাজায় ইসরায়েলি বোমা হামলা

গত শুক্রবার ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় নির্বিচার বিমান হামলা ও গোলাবর্ষণ চালাতে শুরু করে ইসরায়েলি বাহিনী। এর জবাবে ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ গোষ্ঠী ইসলামিক জিহাদও ইসরায়েলকে লক্ষ্য করে রকেট নিক্ষেপ করে। এ সংঘাতে এখন পর্যন্ত ১৫ শিশু ও চার নারীসহ অন্তত ৪৩ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন।

নিহতদের মধ্যে ইসলামিক জিহাদের দুজন শীর্ষ কমান্ডার রয়েছেন বলেও জানা গেছে। এসব হামলায় গুরুতর আহত হয়েছে আরও অন্তত ৩১১ জন। আর ইসলামিক জিহাদের রকেট হামলায় ইসরায়েলের দুজন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে।

destroyed house in gazaইসরায়েলি হামলায় ধ্বংসস্তূপে পরিণত হওয়া বাড়িঘর

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলোর প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গাজা উপত্যকায় ইসরায়েলের বিমান হামলায় বেশ কিছু আবাসিক ভবন একেবারে মাটির সাথে মিশে গেছে। এছাড়াও আংশিক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে আরো অনেকগুলো বাড়িঘর।

চলমান সংঘাতের আগে গত বছরের মে মাসে ইসরায়েল ও হামাসের মধ্যে লড়াই বেঁধেছিল। সেবারও মিশরের মধ্যস্থতায় ১১দিন পর উভয় পক্ষ যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয়। ওই লড়াইয়ে শতাধিক নারী ও শিশুসহ ফিলিস্তিনের অন্তত ২৪০ জন নিহত হয়েছেন।

এদিকে, যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার পরও ফিলিস্তিনের গাজা উপত্যকায় বিমান হামলা চালাচ্ছে ইসরায়েল। তারা জানিয়েছে, রোববার রাত সাড়ে আটটায় যুদ্ধবিরতি কার্যকর হওয়ার পরও গাজায় আবার হামলা চালানো হয়েছে। তাদের দাবি, ফিলিস্তিনি প্রতিরোধ গোষ্ঠীর রকেট হামলার জবাবে এই হামলা চালিয়েছে তারা।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর