advertisement
আপনি পড়ছেন

বাংলাদেশ থেকে প্রতিবেশী ভারতে স্থায়ীভাবে ইলিশ রপ্তানি বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। উচ্চ আদালতের সংশ্লিষ্ট শাখায় আজ মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রিটটি দায়ের করেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী মো. মাহমুদুল হাসান।

hilsa fish 2k20ভারতে ইলিশ রপ্তানি বন্ধে রিট

রিটে ভারতে কম দামে ইলিশ রপ্তানি বন্ধে সংশ্লিষ্টদের নিষ্ক্রিয়তা কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে না, তা জানতে রুল জারির আবেদন জানানো হয়। এতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ সংশ্লিষ্টদের বিবাদী করা হয়েছে।

এর আগে চলতি মাসের ১১ তারিখে ভারতে ইলিশ রপ্তানি বন্ধে সরকারকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সচিব, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব, মৎস্য ও প্রাণিসম্পদ মন্ত্রণালয়ের সচিব, বেসরকারি বিমান ও পর্যটন মন্ত্রণালয়ের সচিব, রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান, আমদানি ও রপ্তানি প্রধান নিয়ন্ত্রকের দপ্তর এবং বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশনের চেয়ারম্যানকে এই নোটিশ দেওয়া হয়। এটিও পাঠিয়েছিলেন আইনজীবী মো. মাহমুদুল হাসান।

এই নোটিশে বলা হয়, ইলিশ বাংলাদেশের জাতীয় মাছ। তবে বর্তমানে ইলিশের অত্যধিক দামের কারণে দেশের দরিদ্র জনগোষ্ঠী এ মাছ কেনার কথা চিন্তাও করতে পারেন না।

অপরদিকে, দেশের মধ্যবিত্ত জনগণ ইলিশ কিনতে হিমশিম খাচ্ছে। বাজারে ইলিশের দাম গড়ে ১ হাজার টাকা থেকে ১ হাজার ২০০ টাকা কেজি। এছাড়া ইলিশের মধ্যে সবচেয়ে সুস্বাদু হলো পদ্মা নদীর ইলিশ। বাজারে পদ্মার ইলিশের দাম গড়ে ১ হাজার ২০০ থেকে ১ হাজার ৫০০ টাকা কেজি। তবে পদ্মায় সীমিত পরিমাণ ইলিশ পাওয়া যায়; তাই বাজারে পদ্মার ইলিশ তেমন একটা পাওয়া যায় না।

নোটিশে আরও বলা হয়, অত্যন্ত দুঃখজনক বিষয় এই যে, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় দেশের মানুষের চাহিদার কথা চিন্তা না করে ভারতে ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে। ভারতে ইলিশ রপ্তানির ফলে দেশের বাজারগুলোতে ইলিশের দাম আরও বৃদ্ধি পেয়েছে।

আরও দুঃখজনক বিষয় হলো, দেশের বাজারদরের চেয়ে কম মূল্যে ভারতে ইলিশ রপ্তানি করা হচ্ছে। ভারতে যে ইলিশ রপ্তানি করা হচ্ছে সেগুলো মূলত পদ্মার ইলিশ। এমনিতেই পদ্মায় সীমিত পরিমাণ ইলিশ পাওয়া যায়। তাই পদ্মার ইলিশ ভারতে রপ্তানির ফলে দেশের বাজারে পদ্মার ইলিশ যথেষ্ট পরিমাণে পাওয়া যাচ্ছে না।

দেশের রপ্তানি নীতি ২০২১-২৪ অনুযায়ী, ইলিশ মাছ মুক্তভাবে রপ্তানিযোগ্য পণ্য নয়। তাই বাণিজ্য মন্ত্রণালয় সম্পূর্ণ অনায্যভাবে, জণগণের স্বার্থ উপেক্ষা করে ভারতে ইলিশ রপ্তানির অনুমতি দিয়েছে।

বাংলাদেশ সরকার যদি বিদেশিদের ইলিশের স্বাদ উপভোগ করাতে চায়, সেক্ষেত্রে সরকারের পক্ষে বাংলাদেশ পর্যটন করপোরেশন ‘ইলিশ উৎসব’ এর আয়োজন করতে পারে। যেখানে বিদেশিদের আমন্ত্রণ জানানো হবে এবং তারা বাংলাদেশ ভ্রমণ করে ইলিশের স্বাদ উপভোগ করবে।

এই আইনি নোটিশ পাওয়ার ৭ দিনের মধ্যে ভারতে ইলিশ রপ্তানি স্থায়ীভাবে বন্ধ করতে অনুরোধ জানানো হয়। সেই নোটিশের কোনো জবাব না পেয়ে এবার রিট দায়ের করা হয়েছে।