advertisement
আপনি পড়ছেন

দীর্ঘদিন ধরেই চলছে বৈশ্বিক জ্বালানি সংকট। স্বাভাবিকভাবে এর প্রভাব পড়েছে বাংলাদেশেও। এ অবস্থায় নতুন গ্যাসকূপ অনুসন্ধানের পাশাপাশি বিদ্যমান কূপগুলো খনন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার। জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, এর মাধ্যমে শিগগিরই আমরা জ্বালানি সংকট কাটিয়ে উঠতে সক্ষম হব।

petrobangla logoপেট্রোবাংলা

বিশ্লেষকরা বলছেন, জ্বালানির সংকট মেটাতে বাধ্য হয়ে সরকারকে এলএনজি আমদানি করতে হচ্ছে। এতে অর্থনীতির ওপর চাপ বাড়ছে। তাই এই অবস্থা থেকে বেরিয়ে আসতে হলে দেশে গ্যাস উত্তোলন বাড়াতে হবে। যদি নতুন কোনো খনি আবিষ্কার করা সম্ভব হয়, তাহলে জ্বালানির দীর্ঘমেয়াদি সংকটের সমাধান সম্ভব।

পেট্রোবাংলার চেয়ারম্যান নাজমুল আহসান বলেন, আমরা ৪৬টি নতুন কূপ খনন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আগামী ২০২৫ সালের মধ্যে এই সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করা হবে। আশা করছি, খননকাজ শেষ হলে এসব কূপ থেকে প্রতিদিন ৬১৮ মিলিয়ন ঘনফুট গ্যাস জাতীয় গ্রিডে যুক্ত হবে। এর পাশাপাশি বিদ্যমান কূপগুলোও আরও খনন করা হবে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর