আপনি পড়ছেন

অবৈধভাবে মালয়েশিয়া যাওয়ার পথে বঙ্গোপসাগরে ট্রলারডুবির ঘটনা ঘটেছে। কক্সবাজারের টেকনাফ অঞ্চলের সাগরে যাত্রীবাহী ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারে ৮৫ জন যাত্রী ছিলো বলে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে। ঘটনাস্থল থেকে এখন পর্যন্ত বাংলাদেশি ও রোহিঙ্গা মিলে ৩৯ জনকে উদ্ধার করা হয়েছে। বাকিরা এখনো নিখোঁজ।

boat sinking 1উদ্ধার হওয়া যাত্রীদের একাংশ।

কোস্টগার্ডের টেকনাফের বাহারছড়া আউটপোস্ট স্টেশনের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার দেলোয়ার হোসেন বলেন, ‘মঙ্গলবার ভোরের কোনো এক সময় ট্রলারটি যাত্রী নিয়ে মালয়েশিয়ার উদ্দেশ্যে রওনা হয়। দুর্ঘটনার পর টেকনাফের শামলাপুর হলবনিয়া নৌঘাট থেকে যাত্রীদের উদ্ধার করা হয়। যাদের উদ্ধার করা হয়েছে তাদের নাম পরিচয় তাৎক্ষণিকভাবে জানা যায়নি। যারা নিখোঁজ রয়েছেন তাদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে।’

টেকনাফের বাহারছড়া থানার ইনচার্জ নুর মোহাম্মদ বলেন, সম্ভবত অতিরিক্ত যাত্রী বোঝাইয়ের কারণে ট্রলারটি ডুবে যায়। ট্রলারে কতজন যাত্রী ছিলো তা নিশ্চিত করে বলা যাচ্ছে না। ধারনা করা হচ্ছে ৮৫ জনের মত হতে পারে। যাদের উদ্ধার করা হয়েছে তাদের মধ্যে রোহিঙ্গার সংখ্যাই বেশি।

তিনি আরও বলেন, ‘সাগরে লাশ ভাসতে দেখেছেন বলে স্থানীয় জেলেরা জানিয়েছেন। তবে আমরা এখনো কোনো লাশ পাইনি। ট্রলারে নারী ও শিশুও ছিলো।’

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর