আপনি পড়ছেন

জাতিসংঘের শান্তিরক্ষা মিশনে মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে নিযুক্ত তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী বোমা বিস্ফোরণে নিহত হয়েছেন। সোমবার রাতে মধ্য আফ্রিকার দেশটিতে এ ঘটনা ঘটে। নিহতরা হলেন, সৈনিক জাহাঙ্গীর আলম, জসিম উদ্দিন ও শরিফ হোসেন। এ সময় আহত হয়েছেন মেজর আশরাফুল হক। আজ মঙ্গলবার (৪ অক্টোবর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর (আইএসপিআর)।

un peace bdমধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে নিহত তিন বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী

নিহতদের মধ্যে জসিম উদ্দিনের বাড়ি ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর থানার কাটিঙ্গা গ্রামে। জাহাঙ্গীর আলমের বাড়ি নীলফামারীর ডিমলা থানার দক্ষিণ টিটপাড়ায়। অন্যদিকে শরিফ হোসেনের বাড়ি সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি থানার বাড়াক রুয়া গ্রামে।

আইএসপিআর জানায়, স্থানীয় সময় সোমবার রাতে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের একটি দল টহল থেকে ফেরার পথে মাটিতে পুঁতে রাখা বোমা (আইইডি) বিস্ফোরণের শিকার হয়। বিস্ফোরণের প্রচণ্ডতায় টহল দলের একটি গাড়ি অন্তত ১০ হাত দূরে ছিটকে পড়ে। এতে তিন শান্তিরক্ষী নিহত ও একজন আহত হন।

আইএসপিআর জানায়, দুর্গম এলাকার অস্থায়ী ক্যাম্প কুই থেকে বাংলাদেশি শান্তিরক্ষী দলটি টহল কমান্ডার মেজর আশরাফের নেতৃত্বে কাইতা এলাকায় গিয়েছিল। টহল শেষে ফেরার পথে বহরের প্রথম গাড়িটি বোমার কবলে পড়ে।

২০২১ সালের ৯ নভেম্বর থেকে মধ্য আফ্রিকান প্রজাতন্ত্রে শান্তিরক্ষায় নিয়োজিত আছে  বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর পদাতিক ব্যাটালিয়ন (ব্যানব্যাট-৮)।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়, আহত শান্তিরক্ষী মেজর আশরাফুল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার অবস্থা স্থিতিশীল। নিহত সেনাদের মরদেহ দ্রুততম সময়ে হবে। দেশটিতে নিয়োজিত অন্য শান্তিরক্ষীরা নিরাপদে আছেন।

আফ্রিকার ৮টি দেশে শান্তিরক্ষা কার্যক্রমে নিয়োজিত রয়েছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর শান্তিরক্ষীরা। তারা সর্বোচ্চ পেশাদারিত্ব বজায় রেখে বাংলাদেশের মর্যাদা অক্ষুণ্ন রেখে চলেছেন বিশ্ব দরবারে। জাতিসংঘ শান্তিরক্ষী পাঠানো দেশের তালিকায় শীর্ষ অবস্থানে আছে বাংলাদেশ।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর