আপনি পড়ছেন

ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তিকে বেদনাদায়ক বলে উল্লেখ করেছেন মরক্কোর সাবেক প্রধানমন্ত্রী সালাহেদ্দিন আল উসমানি। তিনি জানিয়েছেন, ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের চাপে পড়ে তিনি এ চুক্তি স্বাক্ষর করতে বাধ্য হয়েছিলেন।

salaheddin el othmaniমরক্কোর সাবেক প্রধানমন্ত্রী সালাহেদ্দিন আল উসমানি

সম্প্রতি আল আরাবি টিভিকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে মরক্কোর সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী তার শাসনামল এবং ইসরায়েলের সাথে চুক্তি নিয়ে বিভিন্ন কথা বলেছেন। গত সেপ্টেম্বরে পদত্যাগ করার পর এই প্রথম তিনি কোনো মিডিয়ায় সাক্ষাতকার দিলেন।   

ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার ঘোর বিরোধী ছিলেন আল উসমানি। সেই তিনি ২০২০ সালে ইসরায়েলের সাথে সম্পর্ক স্বাভাবিক করার চুক্তি করেন। এতে অনেকেই বিস্মিত হয়েছিল। তিনি নিজের পক্ষে সাফাই গাইতে গিয়ে উল্লেখ করেছেন, তার ওপর সরকারের উচ্চ পর্যায়ের চাপ ছিল।

আল উসমানি বলেন, ‘চুক্তি স্বাক্ষর করার মুহূর্তটি বেদনাদায়ক এবং কঠিন ছিল। তবে এটি একটি রাষ্ট্রীয় সিদ্ধান্ত ছিল এবং আমি সরকার প্রধান ছিলাম।' 

সাবেক এই প্রধানমন্ত্রী জানিয়েছেন, ইসরায়েলের ব্যাপারে তার ব্যক্তিগত অবস্থানের কোনো পরিবর্তন হয়নি। তিনি সবসময় ইসরায়েলি সহিংসতার বিরুদ্ধে ফিলিস্তিনের পাশে আছেন।

উল্লেখ্য, ২০২০ সালের ১০ নভেম্বর সালাহেদ্দিন আল উসমানি তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উপদেষ্টা জ্যারেড কুশনার এবং ইসরায়েলের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মেইর বেন শাব্বাতের সাথে বিতর্কিত এই চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছিলেন। 

সূত্র: দ্য নিউ আরব

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর