আপনি পড়ছেন

গত দুই সপ্তাহে আফগানিস্তানের অনেকাঞ্চলের তাপামাত্রা হিমাঙ্কের নিচে নেমে যাওয়ায় প্রচণ্ড ঠান্ডায় অন্তত ১২৪ জনের মৃত্যু হয়েছে। এদিকে দেশটিতে এক দশকের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ঠাণ্ডা পড়ায় মারা গেছে ৭০ হাজারের বেশি গবাদি পশু। আফগানিস্তানের দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা মন্ত্রণালয়ের একজন মুখপাত্র এ তথ্য জানান। খবর বিবিসির।

kabul snowফাইল ছবি

তালেবান আফগান নারীদের বেসরকারী সংস্থায় কাজ করা নিষিদ্ধ করার পর সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে অনেক সাহায্য সংস্থা কার্যক্রম স্থগিত করেছে। একজন তালেবান মন্ত্রী বলেছেন, নিহত হওয়া সত্ত্বেও এই আদেশ পরিবর্তন করা হবে না।

দুর্যোগ ব্যবস্থাপনার ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী মোল্লা মোহাম্মদ আব্বাস আখুন্দ বলেন, আফগানিস্তানের অনেক এলাকা এখন তুষারের কারণে বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। উদ্ধারের জন্য সামরিক হেলিকপ্টার পাঠানো হলেও পাহাড়ী অঞ্চলে সেটি অবতরণ করতে পারেনি।

তিনি বলেন, আগামী ১০ দিনের পূর্বাভাসে বলা হয়েছে তাপমাত্রা উষ্ণ হবে। তবে তিনি এখনও আফগান এবং তাদের গবাদি পশু-মৃত্যুর ক্রমবর্ধমান সংখ্যা নিয়ে চিন্তিত।

মোল্লা আখুন্দ বলেন, যারা ঠান্ডায় প্রাণ হারিয়েছেন তাদের বেশিরভাগই রাখাল বা গ্রামীণ এলাকায় বসবাসকারী মানুষ। তারা স্বাস্থ্যসেবার কাছাকাছি ছিলেন না।

গত মাস থেকে তালেবান সরকারের নির্দেশে আফগান নারীদের সাহায্য সংস্থায় কাজ করা থেকে বিরত রাখা হয়েছে। এরপর দেশটিতে কাজ করা অনেক সংস্থা তাদের ত্রাণ কার্যক্রম বন্ধ রেখেছে।

তবে মোল্লা আখুন্দ স্পষ্টভাবে জানিয়েছেন এই আদেশ প্রত্যাহার করা হবে না। আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়কে তিনি জোর দিয়ে বলেন, আফগানিস্তানের ইসলামিক সংস্কৃতিকে মেনে নিতে হবে।

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর