আপনি পড়ছেন

দক্ষিণ এশিয়ার তিনটি দেশ পাকিস্তান, আফগানিস্তান ও ভারত এবং তাজিকিস্তানে একইসাথে অনুভূত হওয়া এক শক্তিশালী ভূমিকম্পে নিহতের সংখ্যা ৩০০ ছাড়িয়ে গেছে। এর মধ্যে উপজাতি অধ্যুষিত পাকিস্তানের উত্তর ও উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলের এলাকাগুলোতে নিহতের সংখ্যা সবচেয়ে বেশি বলে ধারণা করা হচ্ছে। ইতোমধ্যে সেখানে নিহতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়েছে। অন্যদিকে আফগানিস্তানে নিহতের সংখ্যা দাড়িঁয়েছে ৮২ জনে।

earth quack in south asia

নিহতের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী পারভেজ রশিদ জানিয়েছেন, সবচেয়ে বেশি হতাহত হয়েছে খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের চিত্রাল এলাকায়। এদিকে ভূমিকম্পের খবরে বিদেশ সফর সংক্ষিপ্ত করে এরই মধ্যে দেশের পথ ধরেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ।

উত্তর আফগানিস্তানের তাখান প্রদেশের রাজধানী তালুকানে একটি স্কুলে ভূমিকম্পের সময় আতংকিত হয়ে সিঁড়ি দিয়ে নামার সময় ১২ জন ছাত্রী নিহত হয়। একই ঘটনায় ২৫ জন আহত হয়েছে। আহতদের অবস্থা খুবই আশঙ্কাজনক। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া কুনার প্রদেশে ৭ জন, জালালাবাদে ৫ জন এবং উত্তর বাদাখশানে ১ জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপে ভূমিকম্পের মাত্রা রিখটার স্কেলে সাত মাত্রারও বেশি বলে জানানো হয়েছে। ভূমিকম্পের তীব্রতায় কাবুল, ইসলামাবাদ ও দিল্লির ভবনগুলো প্রায় মিনিটখানেক ধরে দুলতে থাকে। এ সময় রাওয়ালপিন্ডি ও পেশওয়ার শহরের বেশ কিছু ভবন সম্পূর্ণ ভেঙে পড়ে।

মার্কিন ভূতাত্বিক জরিপ সংস্থার (ইউএসজিএস) তথ্য অনুযায়ী, ভুমিকম্পের কেন্দ্রবিন্দুটি ছিল, উত্তর পূর্ব আফগানিস্তানের পার্বত্য শহর ফৈজাবাদের ৭৫ কিলোমিটার দক্ষিণে।

 

আপনি আরও পড়তে পারেন

সাদ্দাম-গাদ্দাফি থাকলে বিশ্ব অনেক ভালো থাকতো: ডোনাল্ড ট্রাম্প

ভূমিকম্পে কেঁপে উঠলো দক্ষিণ এশিয়ার ৩ দেশ

কটা বাজে, জানে না তুরস্কের মানুষ!

গুগল নিউজে আমাদের প্রকাশিত খবর পেতে এখানে ক্লিক করুন...

খেলাধুলা, তথ্য-প্রযুক্তি, লাইফস্টাইল, দেশ-বিদেশের রাজনৈতিক বিশ্লেষণ সহ সর্বশেষ খবর