advertisement
আপনি পড়ছেন

চলতি বছরের শুরু থেকেই সীমান্তে ভারত-চীন উত্তেজনা ক্রমশ বাড়ছে। যুদ্ধ লেগে যায় যায় অবস্থা। এরই মধ্যে চীন দাবি করেছে, সীমান্তবর্তী সংঘাতপূর্ণ এলাকা থেকে ভারতীয়রা তাদের সৈন্যদের প্রত্যাহার করে নিয়েছে। ফলে সীমান্তে তাদের কাছে বস্তুত হেরে গেছে ভারত।

india china boarder clash

ভারতের এই পিছু হটার কারণে সীমান্তে চলমান উত্তেজনার অবসান ঘটতে যাচ্ছে বলে চীন মনে করছে। চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দাবি করেছে, ভারতীয় সৈন্যরা সীমান্ত লঙ্ঘন করেছে। ফলে তাদের নিজস্ব সীমানায় চলে যেতে বাধ্য করা হয়েছে।

তবে চীনের দাবির সঙ্গে একমত নয় ভারত। তারা বলছে, দুই দেশের সমঝোতার মাধ্যমেই ভারতীয় সেনাদের সীমান্ত থেকে সরানো হয়েছে। ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি সামনের সপ্তাহে চীন সফরে যাওয়ার কথা রয়েছে। এর আগ মুহূর্তে সীমান্তে দুপক্ষের মধ্যে সমঝোতার ঘোষণা এলো।

আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসির সংবাদদাতা রবিন ব্র্যান্ট চীন থেকে জানিয়েছেন, ‘চীনের রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমগুলো বলছে, সীমান্তে চীনের চাপেই ভারত পিছু হটেছে। ভারতীয় সৈন্যদের 'সীমান্ত লঙ্ঘনকারী' হিসেবেও আখ্যায়িত করা হয়েছে। চীন নিজেদের বিজয়ী বলেই দাবি করেছে।’

দিল্লী থেকে বিবিসির সংবাদদাতা সঞ্জয় মজুমদার জানান, ‘চীনের জন্য এটি জয়ের মতো হলেও ভারত বিষয়টিকে সেভাবে গুরুত্ব দিচ্ছে না। ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় মনে করছে, চীনের সঙ্গে চলমান কূটনৈতিক তৎপরতার ফলাফল হিসেবে ভারত সৈন্য সরিয়ে নিয়েছে।’

প্রসঙ্গত, গত জুন মাসে চীন ডোকলাম সীমান্তে একটি সড়ক নির্মাণের উদ্যোগ নিলে প্রতিবেশী দুই দেশের মধ্যে উত্তেজনার শুরু হয়। সীমান্তবর্তী ওই জায়গাটি ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য সিকিমের সঙ্গে ভুটানের সংযোগস্থল। ভুটান জায়গাটি তাদের সীমানার ভেতরে পড়েছে বলে দাবি করে। এতে সমর্থন রয়েছে ভারতের। অন্যদিকে চীনের দাবি জায়গাটি তাদের।