advertisement
আপনি পড়ছেন

মিয়ানমারের রাখাইন প্রদেশে রোহিঙ্গাদের ওপর চলমান দেশটির নিরাপত্তা বাহিনীর ভয়াবহ নিপীড়ন বন্ধে জাপানকে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছে ইরান। জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের বার্ষিক সম্মেলনে অংশগ্রহণের লক্ষ্যে নিউ ইয়র্ক সফররত ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি জাপানি প্রধানমন্ত্রী শিনজো অ্যাবের সঙ্গে বৈঠককালে এ আহ্বান জানান।

abey ruhani

ইরানী সংবাদ মাধ্যম পার্সটুডে জানিয়েছে, বৈঠকে রুহানি অ্যাবেকে বলেছেন, নির্মম হত্যাকাণ্ড ও উৎপীড়ন বন্ধে মিয়ানমার সরকারের ওপর জাপানের মতো দেশগুলোর চাপ প্রয়োগ রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর চলমান দুর্দশা লাগবে ইতিবাচক ভূমিকা রাখতে পারে। তিনি জাপানের প্রধানমন্ত্রীকে রোহিঙ্গা শরণার্থীদের জন্য ত্রাণ পাঠানোরও আহ্বান জানান।

ইরানের পরমাণু ইস্যুতে ২০১৫ সালের জুলাই মাসে ছয় দেশের সাথে হওয়া আন্তর্জাতিক সমঝোতার বিষয়ে রুহানি বলেন, আমাদের সাথে পরমাণু ইস্যুতে একটি আন্তর্জাতিক চুক্তি আছে। এরপরেও একটি দেশ (আমেরিকা) স্বেচ্ছাচারীভাবে এই সমঝোতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার চেষ্টা করছে।

রুহানি বলেন, ‘আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থা তাদের আটটি প্রতিবেদনে ইরানের পরমাণু কর্মসূচি নিয়ে কোন প্রশ্ন তুলেনি। বরং তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইরান পরমাণু সমঝোতা পুরোপুরি মেনে চলছে। তাই ওই সমঝোতাকে প্রশ্নবিদ্ধ করার কোনো অর্থ নেই।’