advertisement
আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 59 মিনিট আগে

খুনের আগে স্বামী আশুতোষ মালির জন্য পরোটা, তরকারি আর পায়েস তৈরি করেছিল স্ত্রী কুমকুম। আর সেই খাবারের মধ্যেই ইঁদুর মারার বিষ মিশিয়ে দিয়েছিল ওই তরুণী। যা খেয়ে অচেতন হয়ে পড়েছিলেন আশুতোষ।

wife faired youth india

বেশ কিছুক্ষণ পরও স্বামীর জ্ঞান না ফেরায় তার মৃত্যু নিশ্চিত করতে বুকের ডান দিকে পর পর দুই বার ছুরি দিয়ে আঘাত করেছিল কুমকুম। ঘটনাটি ভারতের পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যের রাজধানী কলকাতার।

এমনকি স্বামীর মরদেহ গুম করতে দিল্লি থেকে লালু নামের এক যুবককে ১০ হাজার টাকার বিনিময়ে কলকাতায় নিয়ে এসেছিল ওই তরুণী। আর সুমন তারই সঙ্গী।

কলকাতার আনন্দবাজার বলছে, বুধবার সকালে কুমকুম ও তার সঙ্গী সুমনকে সঙ্গে নিয়ে ঘটনাস্থলে যায় থানার তদন্তকারীরা, যেখানে আশুতোষের মরদেহ কেরোসিন দিয়ে জ্বালিয়ে দিয়েছিল সুমন।

কুমকুমের দাবি, প্রতিদিন ভাঙ খেয়ে নেশা করে বাড়িতে আসতো আশুতোষ। আর তাই সেদিন ইঁদুর মারার বিষ খাওয়ার সময় কিছু বুঝতে পারেনি তার স্বামী।

sheikh mujib 2020