আপনি দেখছেন
সর্বশেষ আপডেট: 23 মিনিট আগে

আফগানিস্তানকে দেয়া মার্কিন সাতশো কোটি ডলারের যুদ্ধ সরঞ্জাম চুরি হয়ে গেছে। দুর্নীতিগ্রস্ত হয়ে পড়া দেশটিতে এর আগেও শত শত কোটি ডলারের সহায়তা ভেস্তে গেছে চুরির কারণে। সংবাদমাধ্যম আরটিকে পেন্টাগনের সাবেক কর্মকর্তা মাইকেল মালুফ এ খবর জানিয়েছেন।

us afgan corruption

তিনি বলেন, ‘দুর্নীতির চরম মাত্রায় পৌঁছে যাবার পরেও যুক্তরাষ্ট্র এখন পর্যন্ত দেশটিকে সাহায্য দিয়ে যাচ্ছে। কারণ কোনো কারণে আফগান সরকারের পতন হলে ওই এলাকায় ভূ-রাজনৈতিক বিপর্যয় নেমে আসবে।

তিনি বলেন, ‘এই সমস্যা অনেক বছর ধরে চলছে। দুর্নীতির কারণে এই সমস্যা নিয়ন্ত্রনের বাইরে চলে গেছে উল্লেখ করে পেন্টাগনের সাবেক এই কর্মকর্তা বলেন, আফগানিস্তানে দুর্নীতির শুরুটা হয় সাহায্যের অর্থ চুরির মধ্য দিয়ে। সেটা এখন যুদ্ধ সরঞ্জাম চুরিতে এসে ঠেকেছে।

চুরির এসব বস্তু কালোবাজারে বিক্রি হয় উল্লেখ করে মালুফ বলেন, এই যুদ্ধ সরঞ্জাম বিভিন্ন সন্ত্রাসী গোষ্ঠীর কাছে বিক্রি করা হয়, যারা আফগান ও মার্কিন বাহিনীর বিরুদ্ধে লড়ছে।

প্রসঙ্গত, ২০১৪ সালে আফগানিস্তানের পশ্চিমাঞ্চলে শহর পাকতিয়া প্রদেশের কেয়ারনি ঘাঁটি থেকে ৭০০ কোটি ডলারের যুদ্ধ সরঞ্জাম চুরি হয়।

প্রদেশটির গভর্নর রাহমান সামকানি সংবাদমাধ্যমকে জানান, ‘সাবেক গভর্নর, কমান্ডার, মেয়র, ডিরেক্টর, এমপিরা এসব অর্থ ও সরঞ্জাম লুটের সাথে জড়িত।’