advertisement
আপনি দেখছেন

গেরিলা কুর্দি অধ্যুষিত তুরস্কের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলীয় সিজরে শহরে অবশেষে সেনা অভিযান শেষ করেছে তুরস্ক সরকার। বৃহস্পতিবার দেশটির সেনাপ্রধান এ ঘোষণা দেন। তবে গত দুই মাস ধরে চলমান এ সেনা অভিযানে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৫৮০ জন।

turkey sijore gerila

নানা কারণে সিজরে শহরটি তুরস্কের জন্য বেশ গুরুত্বপূর্ণ। সিরনাক প্রদেশের শহরটি ইরাক ও সিরিয়ার সীমান্তবর্তী একটি শহর।

তুরস্কের রাজধানী ইস্তাম্বুলে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী একফান অভিযানের বিষয়ে বলেন, আমাদের সেনাবাহিনী বেশ সফলতা এবং স্বল্প সময়ের মধ্যে অভিযান শেষ করেছে। সিজরে শহর থেকে কুর্দিস্তান ওয়ার্কার্স পার্টি বা পিকেকে গেরিলাদেরকে নিমূর্ল করেছে সেনাবাহিনী।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী দাবি করেছেন, সিজরের গেরিলার ওপর সেনাবাহিনী সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। তবে সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ আনতে শহরটিতে আরো কিছুদিন দিনরাত ২৪ঘণ্টা কারফিউ।

গত ডিসেম্বর থেকে তুর্কি সরকার সিজর শহরে সেনা অভিযান অব্যাহত রেখেছে। অভিযানের স্বার্থে সিজর এবং পার্শ্ববর্তি সুর শহরে ২৪ ঘণ্টার করে নিয়মিত কারফিউ বজায় রেখেছে।

দেশটির সেনাবাহিনীর মতে, ২০১৪ সালের ১৪ ডিসেম্বর থেকে পিকেকে গেরিলাদের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু হয়। অভিযান শেষ হওয়া পর্যন্ত মোট ৫৮০ গেরিলা নিহত ও কয়েক হাজার মানুষ আহত হয়েছে। তবে তুরস্কের মানবাধিকার সংস্থাগুলো বলছে সেনা অভিযানে গেরিলা সদস্যের পাশাপাশি অসংখ্য বেসামরিক নাগরিকও মারা গেছে।

 

আপনি আরো পড়তে পারেন

চুল কাটা পছন্দসই না হওয়ায় নাপিতকে গুলি!

নাইজেরিয়ায় দুই নারীর হামলায় ৫৮ জনের মৃত্যু

যুক্তরাষ্ট্রের 'থাড' মোতায়েন নিয়ে রাশিয়ার হুঁশিয়ারি

sheikh mujib 2020