advertisement
আপনি দেখছেন

বিশ্ব কূটনীতিতে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, রাশিয়া, প্যারিস, বিট্রেনসহ শীর্ষস্থানীয় দেশগুলোর মধ্যে একটা প্রতিযোগিতা সবসময়ই চলে। সেখানে অবশ্য কমবেশি রাজত্ব চলে যুক্তরাষ্ট্রেরই। তবে অস্ট্রেলিয়ার লোয়ি ইন্সটিটিউট কর্তৃক প্রকাশিত ‘গ্লোবাল ডিপ্লোমেসি ইনডেক্স’ নামের একটি প্রতিবেদন বলছে, যুক্তরাষ্ট্রকে টপকে এখন শীর্ষে অবস্থান করছে চীন।

china usa flag 2019

লোয়ি ইনস্টিটিউটের তথ্যমতে, বিশ্বে যুক্তরাষ্ট্রের যতগুলো কূটনৈতিক মিশন আছে তার চেয়ে বেশি রয়েছে চীনের। ২০১৯ সালে বিশ্বজুড়ে থাকা দূতাবাস ও অন্যান্য দপ্তর মিলিয়ে বেইজিংয়ের মিশনের সংখ্যা ২৭৬টি। যুক্তরাষ্ট্রের মিশনের সংখ্যা ২৭৩। বিশ্বের দুই শীর্ষ অর্থনীতির দেশের পরপরই অবস্থান করছে ফ্রান্স, জাপান ও রাশিয়া।

২০১৬ সালের তালিকায় যুক্তরাজ্য এই তালিকায় ছিল ৯ নম্বরে। এবার দেশটি দুই ধাপ পিছিয়ে ১১ নম্বরে অবস্থান করছে। বিভিন্ন দেশের দূতাবাসের পাশাপাশি তাদের কনসুলেটগুলোকেও গুরুত্ব দিয়েছে গবেষণা প্রতিষ্ঠানটি। বলা হচ্ছে, কূটনৈতিক মিশনের সংখ্যার মাধ্যমে মূলত ভূরাজনীতিতে কোন দেশের ‘শক্তি ও দুর্বলতার’ বিষয়টি ফুটে ওঠে।

২০১৬ সালেও মিশন সংখ্যায় চীন যুক্তরাষ্ট্র ও ফ্রান্সের পেছনে ছিল। এরপর ২০১৭ সালে ফ্রান্সকে পেছনে ফেলে দ্বিতীয় স্থানে অবস্থান করে চীন। চলতি বছর সেই সংখ্যা ২৭৩ এ দাঁড়িয়েছে। অন্যদিকে যুক্তরাজ্য তাদের মিশন কমিয়েই যাচ্ছে। সংখ্যার দিক থেকে তাই লন্ডনের অবস্থান ইতালি, স্পেন ও ব্রাজিলেরও পরে।